ছবির চরিত্রের সঙ্গে এমনভাবে মিশে গেছেন মিমি যে কারণে টুইটারে নিজের নামটাই বদলে ফেলেছেন! ছবির চরিত্রের নাম অনূযায়ী তার নতুন নাম কাব্যিয়া সিনহা। এমন খবর প্রকাশ করেছে কলকাতা টুয়েন্টিফোর। সে খবরে জানা যায়, এই চরিত্রটা নিয়ে বার বার তিনি বলে এসেছেন, ভীষণই গুরুত্বপূর্ণ একটা চরিত্র প্লে করতে চলেছেন তিনি। প্রথমবার এ রকম অফবিট ছবিতে কাজ করছেন মিমি।

ছবির চরিত্র একজন অভিনেতা বা অভিনেত্রীর কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সেই চরিত্রের সঙ্গে মিমি এমনভাবে মিশে গেছেন যে তিনি নিজের নামটাই বদলে দিলেন। কাব্যিয়া সিনহা আর কেউ নয়, ধর্ষণ-খুন মামলায় অভিযুক্ত এক আসামির আইনজীবী। সেই আসামির নাম ধনঞ্জয়। প্রায় ১৩ বছর পরে উঠে আসা এই নামটা এখনো যেন টাটকা সবার মনে৷ যার ফাঁসি নিয়ে তৈরি হয়েছিল চরম বিতর্ক। সেই ধনঞ্জয়ের আইনজীবী হিসেবেই দেখা যাবে মিমিকে।

বেশ অন্য ধরনের একটি চরিত্র এটি। বরাবরই তাকে কমার্শিয়াল ছবিতেই বেশি দেখা গিয়েছে। তবে ‘পোস্ত’ ছবিতে তার অভিনয় অন্যভাবে দাগ কেটে গেছে সিনেমাপ্রেমীদের মনে। তবে এবার বাস্তব কাহিনি নিয়েই তৈরি হতে চলেছে অরিন্দম শীল পরিচালিত ছবি ‘ধনঞ্জয়’। আর সেই ছবিতেই নতুন লুকে পাওয়া যাবে মিমিকে। হেতাল পারেখকে ধর্ষণ ও হত্যার জন্য ১৯৯০ সালের ১লা জুলাই ধনঞ্জয় চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে মামলা হয়।

ধনঞ্জয় একজন নিরাপত্তা রক্ষী ছিল। মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয় ১৫ই অগাস্ট। ২০০৪ সালের প্রথম দিকে ১৪ বছরের কারাদ- এবং এবং অবশেষে ফাঁসির নির্দেশ দেয় দেশের সর্বোচ্চ আদালত। এই গল্পের উপর ভিত্তি করেই অরিন্দম শীলের পরবর্তী ছবি তৈরি হচ্ছে। একেবারে গোয়েন্দা ছবির বাইরে গিয়ে অন্য রকম ভাবনাকে সিনেমার পর্দায় ফুটিয়ে তুলবেন অরিন্দম শীল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য