যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারণা শিবিরের সাবেক চেয়ারম্যান পল ম্যানাফোর্টের ভার্জিনিয়ার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে এফবিআই।

২৬ জুলাই ভোররাতে তল্লাশিটি চালানো হয় বলে নিশ্চিত করেছেন ম্যানাফোর্টের মুখপাত্র জ্যাসন ম্যালোনি, খবর বিবিসির।

এর আগের দিন ম্যানাফোর্ট স্বেচ্ছায় যুক্তরাষ্ট্র সিনেটের ইন্টেলিজেন্স কমিটির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন।

তার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ফাইল ও অন্যান্য উপাদান জব্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন এফবিআইয়ের গোয়েন্দারা।

বিদেশিদের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্নের মুখে ট্রাম্পের প্রচারণা শিবিরের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব ছেড়েছিলেন ম্যানাফোর্ট।

গত বছর অনুষ্ঠিত যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার কথিত হস্তক্ষেপ নিয়ে বেশ কয়েকটি তদন্তের মধ্যে একটির নেতৃত্ব দিচ্ছে এফবিআই।

বিষয়টি নিয়ে প্রথম প্রতিবেদনে ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, এফবিআইয়ের তদন্তের নেতৃত্বে থাকা স্পেশাল কাউন্সেল রবার্ট মুলার ম্যানাফোর্টের বাড়ি থেকে ‘বিভিন্ন সাক্ষ্যপ্রমাণ’ নিয়ে গেছেন।

এই তল্লাশির আগের দিন ম্যানাফোর্ট স্বেচ্ছায় সিনেটের ইন্টেলিজেন্স কমিটির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন, যে কমিটি ২০১৬-র নির্বাচনে রাশিয়ার কথিত হস্তক্ষেপ নিয়ে পৃথক আরেকটি তদন্ত পরিচালনা করছে।

বিশ্লেষকদের মতে, সার্চ ওয়ারেন্ট থেকে ধারণা পাওয়া যাচ্ছে, একজন প্রধান বিচারকের আদেশ অনুযায়ী ম্যানাফোর্ট সব রেকর্ড জমা দিয়েছেন এটি নিশ্চিত হতে চাইছিলেন তদন্তকারীরা।

তল্লাশিকালে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা ট্যাক্সের নথি ও বিদেশি ব্যাংক রেকর্ডের খোঁজ করেছে বলে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ম্যানাফোর্টের মুখপাত্র ম্যালোনি জানিয়েছেন, “গোয়েন্দারা সার্চ ওয়ারেন্ট অনুযায়ী ম্যানাফোর্টের একটি আবাসস্থলে তল্লাশি চালিয়েছে। আইন প্রয়োগকারীদের ও অন্যান্য গুরুতর তদন্তগুলোতে ম্যানাফোর্ট নিয়মিতভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন এবং এই ক্ষেত্রেও তাই করেছেন।”

এ বিষয়ে মন্তব্যের জন্য যোগাযোগ করা হলে স্পেশাল কাউন্সেলের দপ্তর কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি বলে জানিয়েছে বিবিসি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য