দিনাজপুর সংবাদাতাঃ খানসামা উপজেলায় পড়নের শাড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ফুলতি বেগম (২৮) নামে গৃহবধূ আত্নহত্যা করেছে। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

ফুলতি বেগম আসাদ আলীর স্ত্রী ও এক সন্তানের জননী। এ আত্নহত্যার ঘটনাটি আজ বুধবার সকালে উপজেলার ভাবকী ইউনিয়নের তাহিরত শাহ্পাড়ায় ঘটেছে।

এলাকাবাসি সূত্রে জানা গেছে, ফুলতি বেগম তার স্বামী আসাদ আলীর ওপর অভিমান করে বাড়ির সবার অগোচরে ওইদিন সকালবেলা নিজ শয়নকক্ষে ঘরের আড়ার সাথে নিজের পড়নের শাড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্নহত্যা করেছে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ফুলতি বেগমের পিতার বাড়ির লোকজনের আপত্তির কারণে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য