রজব আলী, ফুলবাড়ী থেকেঃ দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া খনি এলাকায় আবারো দেখা দিয়েছে ঘরবাড়ীতে ফাটল ও দেয়াল ধসের ঘটনা। এতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে গ্রামবাসীরা। তারা দেয়াল ধসের হাত থেকে রক্ষা পেতে, এখন পরিবার পরিজন নিয়ে ঘর ছেড়ে বাড়ীর আঙ্গিনায় বাস করছেন।

এদিকে খনির কারনে নতুন নতুন এলাকায় ভুমি অবনতন হতে শুরু করেছে, ভুমি অবনমন হওয়ায় তলিয়ে যাচ্ছে চলাচলের রাস্তা-ঘাট। ফুলবাড়ী-বড়পুকুরিয়া রাস্তাটি কয়েক দফা উচু করলেও এখন তা আবারো তলিয়ে গেছে পানির নিছে। যে কোন সময় রাস্তাটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়তে পারে।

জীবন সম্পদ ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির যুগ্ম আহবায়ক মামুনুর রশিদ বলন খনি থেকে কয়লা আহরনের সময় যে কাপনির সুষ্টি হয়, তাতে এই এলাকার বাড়ী ঘরে ফাটল দেখা দিয়েছে, একই কথা বলেন পাতরাপাড়া গ্রামের হিটলার ও সাবেক ইউপি সদস্য সাইদুর রহমান।

গ্রামবাসীরা জানায় গত বুধবার সন্ধায় কাপনি শুরু হলে বাশপুকুর গ্রামের মেহেদুলের বাড়ীর ইটের প্রাচি ভেঙ্গেপড়ে, এত তার গবাদিপশু আহত হয়। দেয়াল ধসের মধ্যে পাচা পড়ে যে কোন সময় প্রানহানীর ঘটনা ঘটতে পারে, এজন্য তারা পরিবার পরিজন নিয়ে বাড়ীর আঙ্গিনায় বসবাস করেন। গ্রামবাসীরা এখন এই সম্যসা উত্তোরনের জন্য সরকারের উর্দ্ধতন মহলের দিকে তাকিয়ে আছে।

বড়পুকুরিয়া কোলমাইনিং কোম্পানী লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাবিব উদ্দিন আহম্মেদ এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন গ্রামবাসীদের ক্ষতিপুরন প্রদানের জন্য ইতিমধ্যে একটি তদন্ত কমিটি গঠন কলেছেন, সেই তদন্ত কমিটি ক্ষতি পুরনের প্রতিবেদন জমা দিলেই গ্রামবাসীদের মাঝে ক্ষতিপুর প্রদান করবেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য