আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার সাঘাটায় শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রী ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। শাস্তির দাবিতে এলাকায় বিক্ষোভ চলছে।

সরেজমিন ও মামলার বিবরণে জানা যায়, সাঘাটা উপজেলার কামালেরপাড়া ইউনিয়নের গজারিয়া গ্রামের দিন মজুর শাহজামালের স্কুল পড়ুয়া মেয়ে গজারিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী শান্তনা খাতুন শান্তি।

ঘটনার দিন স্কুল টিফিনের সময় উল্লেখিত স্কুলের সহকারী শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান শিশু শান্তনাকে ক্লাশ রুম ঝাড়ু দেওয়ার কথা বলে দ্বিতীয় তলার একটি রুমে ডেকে নিয়ে যায়।

এক পর্যায়ে শিশুটিকে জোড়পূর্বক মেঝেতে শুয়ে ফেলে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় শিশুর চিৎকার শুনে স্কুল মাঠে বিশ্রাম নেওয়া আবু বক্কর নামে এক ব্যক্তি দ্বিতীয় তলার ওই রুমে প্রবেশ করলে শিক্ষক শিশুটিকে ছেড়ে দিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

শিশু শান্তনা বাড়ি গিয়ে তার মাকে এ ঘটনা বলে ফেলেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবকসহ এলাকাবাসী ফুসে ওঠে। তারা বিক্ষোভ মিছিল করে শিক্ষকের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি করেন। ঘটনার পর শিক্ষক আত্মগোপনে রয়েছে। ঘটনার পর শিক্ষক আত্মগোপনে রয়েছে।

যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। এ বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আজিজুর রহমান জানান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থল তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার কপি পাওয়া মাত্রই তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য