প্রত্যন্ত এলাকা পাড়ি দিয়ে কলেজে আসতে হয় নন্দিনীকে। প্রথমে নৌকা, তারপর বাস। ফলে প্রতিদিন ক্লাসে দেরি হয়ে যায় তার। সব শিক্ষকই দাঁড় করিয়ে রাখেন তাকে। শাস্তি দেন। কিন্তু তাদের মধ্যে একটু অন্যরকম হলেন শিক্ষিকা মুনিয়া (প্রভা)। তিনি মেয়েটির জন্য অনুপ্রেরণা হয়ে ওঠেন।

সবচেয়ে রক্ষণশীল শিক্ষক হারুণও (সজল) নন্দিনীর পক্ষে দাঁড়ান। কিন্তু তাদের জন্য লড়াইটি মধুর হয়নি। একটি দীর্ঘ অনুশাসনে আক্রান্ত প্রশাসন তার বিরুদ্ধে দাঁড়ায়। এমনই এক গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘উড়ে যাওয়ার কাল’। নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন মাহমুদ দিদার।

ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া, বিজয় নগর, মাধবপুর ও সিলেটে এর দৃশ্যধারণ হয়েছে বলে জানান পরিচালক। সজল এবং প্রভা ছাড়া এতে আরও অভিনয় করেছেন সুজাতা আজিম, শূন্য মাটি প্রমুখ। আসন্ন ঈদুল আজহায় এনটিভিতে প্রচার করা হবে ‘উড়ে যাওয়ার কাল’।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য