মাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাঁও থেকেঃ ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ চৌরাস্তার পাশে^ অযতœ আর অবহেলায় পরে আছে শহিদ নায়েক রুস্তম আলীর কবরটি ।

মহান মুক্তিযুদ্ধে ১৯৭১ সালে বৃহত্তর দিনাজপুর জেলার দশ মাইল সাত নাম্বার সেক্টর প্রতিরোধ সংগ্রাম পরিষদ সিমান্তবর্তী পাকিস্তানী সশস্ত্র সেনাসদস্যর সাথে মুক্তিযুদ্ধে ১৯৭১ সালে ১৬ই এপ্রিল বীরত্বপূর্ণ অবদান রেখে নেকমরদে শাহাদত বরন করেন।

জানাযায়, শহিদ রুস্তম আলী অবসর প্রাপ্ত সেনাসদস্য (নায়েক) ছিলেন। তিনি ১৯২২ সালে ধর্মগড় মুজাহিদাবাদ কলোনীতে জন্ম গ্রহন করেন।

বর্তমান নেকমরদ চৌরাস্তা হতে পশ্চিমে ২ থেকে ৩ শ ফুট রাস্তার উত্তর পাসে সৃত্মি চিহ্নটি আজ প্রায় বিলুপ্তির পথে, কিছু সময় আগে সাময়িক সংস্কার করা হলেও এখন পুরোপুরি বিল্পুত্তি প্রায়। দেখার কেউ নেই। মানুষের মলমূত্র ও হোটেলের নোংরা পানি বেয়ে যায় কবরের পাশ্¦ে দিয়ে, কেউ এর প্রতিকার করছেনা।

জাতির সুশিল সমাজের কাছে প্রশ্ন আজ যাদের জন্য আমরা বাংলায় কথা বলতে পারি আর যাদের জন্য বলতে পারি আমরা স্বাধীন, জাতির সূর্য সন্তান দের কবর অতি তারাতারি সংরক্ষন করে যথাযোগ্য মর্যাদায় কবরটিকে রক্ষনা বেক্ষণ করা জরুরি।

এবিষয়ে রানীশংকৈল উপজেলা নির্বাহী অফিসার- খন্দকার নাহিদ হাসান বলেন, আমার জানা ছিলনা, আমি এটি পরিদর্শন করে যত তারাতারি সম্ভব পরিস্কার ও সংস্কারের ব্যবস্থ্যা করবো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য