সংবাদ সম্মেলনঃ মুক্তিযোদ্ধার নামে সরকারের বরাদ্ধকৃত ৬ দশমিক ৪৪ শতক জমি প্রভাবশালী ভুমিদস্যু জবরদখল করে নিয়েছে। অসহায় মুক্তিযোদ্ধার সন্তানেরা জমি উদ্ধারের আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুরলেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে কেউ এগিয়ে আসছে না। ভুমিহীন মুক্তিযোদ্ধার সন্তানেরা সরকারের দেয়া ওই জমি উদ্ধারের জন্যে প্রশাসনের সহযোগীতা প্রত্যাশা করেছেন।

গতকাল দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখিত অভিযোগ করেছেন সদর উপজেলার সৈয়দপুর দাবোর পাড়া গ্রামের মরহুম মুক্তিযোদ্ধা আবেদ আলীর পুত্র মোঃ বাবু ড্রাইভার । সংবাদ সম্মেলনে উপস্থাপিত লিখিত অভিযোগে মোঃ বাবু বলেন, তার বাবা মরহুম আবেদ আলী একজন মুক্তিযোদ্ধা, যার ভারতীয় এফ এফ নং ১৬৪৫। ভ’মিহীন মুক্তিযোদ্ধা হওয়ায় সরকারী ভাবে সদর উপজেলার আউলিয়াপুর মৌজার জেল নং ১০৮ এবং খতিয়ান নং ১/১ দাগ নং ৩১৪’র ৬ দশমিক ৪৪ শতক জমি তার বাবাকে দান করেন।

তিনি বলেন,তার বাবার নামে বরাদ্ধকৃত জমিটি কসবা এলাকার মরহুম আব্দুল কাইয়ুম উদ্দীনের পুত্র মোঃ ইউসুফ আলীর নিকট ভাড়া দিয়েছিল আমার পিতা। বাবা বেঁেচ থাকাবস্থায় বেশকিছু দিন সে ঠিকঠাক মত ভাড়া পরিশোধ করলেও তার মৃত্যুও পর বর্তমানে নিজেকে জমিটির মালিক হিসেবে দাবী করছে এবং ক্ষমতার জোওে আমাদেও জমিতে ভীড়তেই দিচ্ছেনা।

ইতিমধ্যে ওই জমিতে ইউসুফ আলী দোকানঘরসহ নানান স্থাপনা তৈরী করেছে। এব্যাপারে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানেরা থানা পুলিশসহ প্রশাসনের বিভিন দপ্তরেœ অভিযোগ দেয়ার পরেও প্রশাসনিকভাবে কোন তৎপরতা নেয়া হচ্ছেনা,যেকারনে ভ’মিদস্যু ইউসুফ আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। মুক্তিযোদ্ধার সন্তানেরা জমি দখলমুক্ত করতে মুক্তিযোদ্ধা সহায়ক সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগীতা প্রত্যাশা করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন,সুলতানা বেগম,মমিনুল ইসলাম ও আরিফা নেহার।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য