‘ফার্স্ট দে কিলড মাই ফাদার ’ ছবির একটি ‍দৃশ্যে শিশুশিল্পীকে ব্যবহারে নিষ্ঠুরতা ও প্রতারণার অভিযোগ উঠেছিল হলিউড অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির বিরুদ্ধে। কম্বোডিয়ান শিশুদের সঙ্গে নিষ্ঠুরতা ও প্রতারণার সে অভিযোগ এবার উড়িয়ে দিলেন এ তারকা।

সম্প্রতি ভ্যানিটি ফেয়ারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমি খুবই মর্মাহত, সিনেমার একটি দৃশ্যকে বাস্তবের সঙ্গে মিলিয়ে ফেলা হচ্ছে’।

কম্বোডিয়ার কিমার রোগ নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্রে ‘ফার্স্ট দে কিলড মাই ফাদার ’ ছবির এক দৃশ্যকে ঘিরে বিতর্কের শুরু হয়। ছবিতে দেখা যায় কম্বোডিয়ার এক শিশু অনেকক্ষণ ধরে টাকার দিকে তাকিয়ে থাকে। কিন্তু তাকে যখন সেটা ফেরত দিতে বলা হয় তখন আবেগে ভেঙে পড়ে সে। সে জানায় তারা বাবার শেষকৃত্য করার জন্য টাকা নেই তার কাছে।

জোলি জানান, কম্বোডিয়ার প্রকৃত চিত্র তুলে ধরতে তারা ছবিটি নির্মাণ করেছেন। অনেক কষ্ট করে নির্মাতারা বস্তি ও এতিমখানায় গিয়ে কলাকুশলীদের খুঁজে বের করেছেন।

বাস্তবে কঠিন পরিস্থিতি দিয়ে গেছে এমন কাউকেই ছবিতে নিতে চেয়েছিলেন তারা। আর অডিশনে খুবই সতর্ক ছিলেন নির্মাতারা। জোলি চান, কম্বোডিয়ান শিশুরা তাদের কষ্টের ব্যাপারে আরও স্পষ্ট করে কথা বলুক।
সূত্র: বিবিসি

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য