মোঃ আনোয়ার হোসেন আকাশ, রাণীশংকৈল থেকেঃ ঠাকুরগাওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ জামাল উদ্দীন চৌধুরীর বিরুদ্ধে অনিয়ম ঘুষ- দূর্ণীতির অভিযোগ উঠেছে। তার বিরুদ্ধে শিক্ষক বদলী বানিজ্য, দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরী নিয়োগে ঘুষ বানিজ্য, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ণমূলক কাজের টাকা আত্মসাৎ সহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ মাহফুজা বেগম পুতুল বলেন, কোন শিক্ষক নিজের ইচ্ছায় তার কর্মস্থল স্কুল থেকে অন্য স্কুলে বদলী হতে চাইলে তাদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়। তিনি বলেন, ১৯টি স্কুলের দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরী নিয়োগে শিক্ষা কর্মকর্তা লক্ষ লক্ষ টাকার ঘুষ বানিজ্য করেছেন। মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তার মনোনীত প্রার্থীকে চাকুরী দেওয়ার অভিযোগে অনেক স্কুলে নিয়োগ কার্যক্রম মাঝে মধ্যে স্থগিত থেমে যায়।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে উন্নয়ন মূলক কাজ পুরোপুরি না করে সিংহ ভাগ টাকা আত্মসাৎ করেন। এমনকি সদ্য ঘুর্নিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো মেরামতের নামে আসা টাকার নামে মাত্র কিছু কাজ করে পুরো টাকা হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে। শিক্ষকদের শ্রান্তি বিনোদনের বাৎসরিক ৩০০০ টাকা বিতরনে রয়েছে অনিয়ম। যে সব শিক্ষক শিক্ষা কর্মকর্তার চাহিদা মত উৎকোচ দেয় তিনি শুধু ওই সব শিক্ষককে শ্রান্তি বিনোদন ভাতা দেন অন্যরা পায়না।

যে সব প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারি করণ করা হয়েছে সে সব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মচারীদের বিল বেতন উত্তোলনের ক্ষেত্রে ইউইও মোটা অংকের আর্থিক বানিজ্য করেছেন। শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ঘুষ দূর্ণীতির কথা প্রকাশ ও আলোচনার ভয়ে তিনি মাসিক সমন্বয় সভায় উপস্থিত থাকেন না। ইউইও’র বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে মাসিক সমন্বয় সভায় রেজুলেশন হয়েছে। অফিস সহকারি ক্ষিতিশ চন্দ্র ও পিয়ন মানিকের মাধ্যমে শিক্ষা অফিসকে দূর্ণীতির দুর্গ গড়ে তোলা হয়েছে বলে পুতুল অভিযোগ করেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ জামাল উদ্দীন চৌধুরীর সাথে কথা হলে তিনি বলেন আমাকে হেও প্রতিপন্ন করার জন্য মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ মাহফুজা বেগম পুতুল এসব অপপ্রচার করছেন।

তবে শিক্ষক নেতারা বলছেন, আসলে আমরা শিক্ষকরাই খারাপ। নিজ স্বার্থের জন্য কর্মকর্তাদের সাথে ঘুষ বানিজ্য করে থাকি। আমাদের এসব পরিহার করা দরকার। তবে কর্মকর্তাদেরও কিছু ত্রুটি রয়েছে বলে জানান শিক্ষক নেতারা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য