ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মিরে আজ নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ২ গেরিলা নিহত হয়েছে। ওই ঘটনায় প্রতিবাদী জনতা সড়কে নেমে বিক্ষোভ করলে পরিস্থিতি সামাল দিতে নিরাপত্তা বাহিনীকে শূন্যে গুলি ছুঁড়তে হয়। গোটা এলাকায় ইন্টারনেটে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

আজ (রোববার) সকালে পুলওয়ামা জেলার তাহাব এলাকায় শাকির আহমদ এবং শাবির আহমদ নামে দুই গেরিলা নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়। নিহত গেরিলারা পুলওয়ামা ও অনন্তনাগ জেলার বাসিন্দা। তাদের কাছ থেকে একটি এসএলআর ও একটি ইনসাস রাইফেল উদ্ধার হয়েছে।

এদিন, গেরিলারা নিহত হওয়ার ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই সাম্বোরা এবং তাহাব এলাকায় প্রতিবাদী মানুষজন সড়কে নেমে এসে ব্যাপক বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে গুজব ছড়ানো বন্ধ করতে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে মোবাইল ইন্টারনেটে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

সেনাবাহিনী গোপন সূত্রে খবর পায় পুলওয়ামার তাহাব এলাকার একটি গ্রামে গেরিলারা লুকিয়ে আছে। এরপর নিরাপত্তা বাহিনী গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে গেরিলাদের খুঁজে বের করার জন্য বাড়ি বাড়ি তল্লাশি চালায়। এ সময় একটি বাড়ি থেকে গেরিলারা নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। নিরাপত্তা বাহিনীর পাল্টা গুলিতে নিহত হয় দুই গেরিলা।

প্রাথমিক তথ্যে প্রকাশ নিহতরা হিজবুল মুজাহিদীনের সদস্য। পুলিশ সূত্রে প্রকাশ, চলতি বছরের ১২ জুলাই পর্যন্ত ১০২ গেরিলা নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয়েছে। গত সাত বছরের মধ্যে এটি সর্বোচ্চ পরিসংখ্যান। নিরাপত্তা বাহিনীর পক্ষ থেকে লস্কর ই তাইয়্যেবা, জৈশ ই মুহাম্মদ ও হিজবুল মুজাহিদীনের গেরিলাদের তালিকা তৈরি করে তাদের নির্মূল অভিযান চালানো হচ্ছে। সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে গত জুন মাসে ১২ গেরিলার হিট লিস্ট প্রকাশ করা হয়েছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য