জেলা ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্তৃপক্ষের সাথে সনাকে’র এক মতবিনিময় সভা ২৬ জুলাই বিকাল ৩.০০টায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

সনাক সভাপতি মোঃ সফিকুল হক ছুটু এর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রাথমিক শিক্ষার মান্নোনয়নসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতকরণ, বিদ্যালয়গুলিতে নারী শিক্ষকের পাশপাশি একজন পুরুষ শিক্ষক প্রদান, জেলা ও উপজেলা শিক্ষা অফিসে তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা নির্দিষ্টকরণ ও অভিযোগ গ্রহণ ও সমাধানের রেজিষ্টার সংরক্ষণ করা, বিদ্যালয়গুলিতে সরকারি নতুন প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী পরীক্ষার ফি জনস¯ু§খে প্রকাশ, বিদ্যালয়ের বার্ষিক পরিকল্পনা ও বাজেট, এসএমসি’র তালিকা, উপবৃত্তিপ্রাপ্তদের তালিকা প্রদর্শন করা, সনাক কার্যক্রমের আওতাভুক্ত বিদ্যালয়গুলিতে শিক্ষক স্বল্পতা ও বিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত সমস্যা দুরীকরণ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

সনাক রড়ইল ও পূর্ব রামনগর সরকারি প্রাথ: বিদ্যালয়ের পাশাপাশি দক্ষিননগর ও মাধবপুর-২ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার মান উন্নয়নে এসএমসিকে কার্যকর করা, শিক্ষকের স্বল্পতা দুরীকরাসহ বিদ্যালয়ে সঠিক সময়ে উপস্থিতি ও পাঠদান নিশ্চিত করা, অভিভাবকবৃন্দের সচেতনতা বৃদ্ধি, উপবৃত্তির তালিকা তৈরি ও বিতরনে স্বচ্ছতা, অবকাঠামোগত উন্নয়নের বিষয়ে বিভিন্নভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে সেগুলি নিয়ে খোলামেলা আলোচনা হয়।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার জনাব, এস. এম তৌফিকুজ্জামান সনাকে’র কার্যক্রমকে শিক্ষা কর্তৃপক্ষের কাজে সহযোগী মনে করেন এবং যথারীতি কার্যক্রমগুলি চালিয়ে যাবার পরামর্শ প্রদান করেন। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ক. খ মোঃ আলাওল হাদী, বিদ্যালয়গুলিতে অনেক সমস্যা বিদ্যমান যেগুলি উপজেলা শিক্ষা অফিসের একার পক্ষে সমাধান করা সম্ভব হয় না, যেমন এসএমসি সদস্যরা নিয়ম অনুযায়ী সময় দিতে চায়না।

সনাক কার্যক্রমের আওতাভুক্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ জানান সনাকে‘র কাজের ফলে বিদ্যালয়ে অনেক পরিবর্তন সাধিত হচ্ছে বলে সভাকে অবহিত করেন। রড়ইল সরকারি প্রাথ: বিদ্যালয়ে নতুন ভবনের সমস্যার বিষয়ে আলোচনা হয়। রামনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রবেশের রাস্তা সংস্কার করা সহ অন্যান বিদ্যালয়গুলি সমস্যা সমাধানের বিষয়ে আলোচনা হয়।

সর্বপরি তথ্য অধিকার আইন অনুযায়ী জেলা ও উপজেলা(সদর) প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে তথ্য কর্মকর্তা নিদিষ্টকরণ ও অভিযোগ গ্রহণ এবং তথ্য প্রদানের রেজিষ্টার রাখার বিষয়ে শিক্ষা কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হয়।

আলোচনায় সক্রিয় অংশগ্রহণ করেন, জেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার মোঃ সাইফুজ জামান, উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার মোঃ আব্দুর রাহিম, মোঃ রবিউল আলম, মোস্তারিরা বেগম, জাহান-ই গুলশান ও প্রফুল্ল কুমার বর্ম্মন, সনাক প্রাক্তন সভাপতি মোঃ হাবিবুল ইসলাম, সনাক সদস্য অধ্যক্ষ হাজেরা হাসান,লাইলা চৌধুরী, মাহামুদা জাহান হোসেন, স্বজন সদস্য মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম বাবলু এবং সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকবৃন্দ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য