দিনাজপুর সংবাদাতা ॥ দিনাজপুরে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন-২০১৭ উপলক্ষে জেলা অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবারের প্রতিপাদ্য ‘ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ান, শিশুমৃত্যুর ঝুঁকি কমান’।

বুধবার (২৬ জুলাই) সকাল ১০টায় দিনাজপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সিভিল সার্জন ডা. মওলা বক্স চৌধুরী। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. গোলাম রাব্বি। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (জেলা বিশেষ শাখা) মো. কাজেম উদ্দিন, দিনাজপুর পরিবার পরিকল্পনার উপ-পরিচালক ডা. অ ন ম নুরুল ইসলাম চৌধুরী, দিনাজপুর বিএমএ’র সাধারণ সম্পাদক ডা. বিকে বোস।

সিভিল সার্জন অফিসের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো. আবু তাহের, সিনিয়র জেলা তথ্য অফিসার মো. রফিকুল ইসলাম, জেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. সাইফুজ্জামান, সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. ইমদাদুল হক প্রমূখ। অনুষ্ঠানে জেলার বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, সাংবাদিক, শিক্ষকসহ স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন।

সভায় জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের সভাপতি সিভিল সার্জন ডা. মওলা বক্স চৌধুরী। এ সময় তিনি ৬ মাসের কম বয়সী শিশু, ৫ বছরের বেশী বয়সের শিশু, অসুস্থ শিশু ও ৪ মাসের মধ্যে ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানো হয়েছে এমন শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো যাবে না বলে জানান। ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর পর কোন সমস্যা হলে ২৪ ঘন্টার মধ্যে তা কেটে যাবে, এতে উদ্বিগ্ন না হওয়ার জন্য অভিভাবকসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। এছাড়া ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইনের বিভিন্ন বিষয়ে মাল্টি মিডিয়ার মাধ্যমে উপস্থাপনা করেন ঢাকা হতে আগত অতিথি মো. শাহাদত হোসেন শাহরিয়ার। এতে ভিটামিন ‘এ’ এর উপকারিতা এবং অভাবজণিত অপকারিতা বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

উল্লেখ্য, আগামী ৫ আগষ্ট দেশব্যাপী জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হবে। ওই ৬-১১ মাস বয়সী প্রতিটি শিশুকে ১টি নীল রঙের ও ১২-৫৯ মাস বয়সী প্রতিটি শিশুকে ১টি লাল রঙের ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য