দাবানলের কারণে ফ্রান্সের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল থেকে একরাতের মধ্যে ১০ হাজার লোককে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

বিবিসি জানিয়েছে, দেশটির প্রভোস আল্পে কোত দ্য জিও অঞ্চলের বোমে লেমি মুজার কাছে দাবানলের সঙ্গে লড়াই করতে কয়েকশত দমকল কর্মীকে মোতায়েন করা হয়েছে।

এর আগে ওই দাবানলের সঙ্গে লড়াই করার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত (ইইউ) প্রতিবেশীদের কাছে আরো সাহায্য চেয়েছিল ফ্রান্স।

দাবানলে দেশটির ভূমধ্যসাগর উপকূলীয় এলাকাজুড়ে চার হাজার হেক্টর এলাকা পুড়ে গেছে, এর মধ্যে মূল ভূখণ্ডের পবর্তময় এলাকা ও কর্সিকা দ্বীপের অংশ রয়েছে।

এক দমকল কর্মকর্তা বলেছেন, “দাবানল ছড়িয়ে পড়ার মুখে অন্তত ১০ হাজার লোককে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। গ্রীষ্মে এই এলাকার লোকসংখ্যা দুই থেকে তিনগুণ হয়ে যায়।”

জনপ্রিয় অবকাশযাপন এলাকা সান্ত ত্রোপের কাছে একটি এলাকায় বিপজ্জনক ওই দাবানল প্রবলতর হয়ে উঠছে।

কর্সিকায় কয়েকশত ঘরবাড়ি থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

দুই এলাকা মিলিয়ে চার হাজারেরও বেশি দমকল কর্মী অগ্নিনির্বাপণ বিমানগুলোর সহায়তায় নিয়ে সোমবার থেকে আগুন নিভানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে।

এ পর্যন্ত অন্তত ১২ জন দমকল কর্মী আহত হয়েছেন এবং ১৫ জন পুলিশ কর্মকর্তা ধোঁয়ায় শ্বাসরোধজনিত অসুস্থতার শিকার হয়েছেন বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

প্রভোস আল্পে কোত দ্য জিওর ক্যাম্পিং সাইট থেকে ব্রিটিশ পর্যটক লিসা মিনোট বিবিসিকে জানিয়েছেন, স্থানীয় কর্তৃপক্ষ আবকাশযাপনে আসা পর্যটকদের সমুদ্র সৈকতেই অবস্থান করতে বলেছে, ক্যাম্পসাইটগুলো নিরাপদ না হওয়ায় সেখানে যেতে নিষেধ করেছে।

আগুনে এরমধ্যেই কিছু ক্যাম্পসাইট ধ্বংস হয়ে গেছে বলে খবর পাওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য