আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকে: লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় নদীতে ভেসে যাওয়া হোসনে আরা (২৬) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত হোসনে আরা জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার হারিশহর গ্রামের হোসেনের মেয়ে।হোসনে আরাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ওই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবদের জন্য শ্বাশুর শাশুড়িকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের কাজিরহাট এলাকার বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে বিধুয়ামাল্লী ব্রিজের নিচে নালা (নদী) থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত গৃহবধূ হোসনে আরা ওই গ্রামের জোবায়দুল মিয়ার স্ত্রী ও একই গ্রামের হোসেন আলীর মেয়ে।

আটককৃতরা হলেন- নিহত গৃহবধূর শ্বশুর আব্দুল ছাত্তার (৬০) ও শাশুড়ি জেবেদা বেগম (৫৪)।পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ৮ বছর আগে বিয়ে হয় হোসনে আরা-জোবায়দুল দম্পতির। বিয়ের পর থেকে তাদের মাঝে প্রায় বিবাদ লাগত। রোববার রাতেও তাদের মধ্যে ঝগড়া লাগে। সোমবার দুপুরে স্থানীয়রা বিধুয়ামাল্লী ব্রিজের নিচে গৃহবধূ হোসনে আরার মৃতদেহ দেখে পুলিশে খবর দেয়।

খবর পেয়ে পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।কালীগঞ্জ থানার এসআই রাজু আহমেদ জানান, গলায় চিহ্ন দেখে ধারণা করা হচ্ছে ঘাতকরা তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গৃহবধূর শ্বাশুর-শাশুড়িকে আটক করা হয়েছে।কালীগঞ্জ থানার ওসি মকবুল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহত গৃহবধূর শ্বশুর ও শাশুড়ি জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পাশাপাশি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য