মোঃ আবেদ আলী, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) থেকেঃ বীরগঞ্জে ভ্রাম্যমান আদালত এক ভূয়া ডিগ্রী পাশ পরীক্ষার্থীকে এক বছরের কারাদন্ডে দন্ডিত করে কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে।

উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের সৈয়দপুর কল্যাণী গ্রামের মোঃ আব্দুল মালেকের ছেলে মোঃ মামুনুর রশিদ বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস ও প্রতœতন্ত বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র । বীরগঞ্জ সরকারী ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত ডিগ্রী পাশ পরীক্ষা-২০১৫ ইংরেজী আবশ্যিক পরীক্ষা চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। পরে বিকেল ৫টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ আলম হোসেন ভ্রাম্যমান আদালতে এ কারাদন্ড প্রদান করেন।

বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ ও কেন্দ্র সচিব মোঃ খয়রুল ইসলাম চৌধুরী জানান, মঙ্গলবার বিকেলে বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্রে জেলার খানসামা উপজেলার পাকের হাট ডিগ্রী কলেজের শিক্ষার্থীরা ডিগ্রী পরীক্ষা-২০১৫ ইংরেজী আবশ্যিক পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে মোঃ নুর নবী শাহ নামের একজন পরীক্ষার্থীর উপস্থিতির স্বাক্ষর নেওয়ার সময় কক্ষ পরিদর্শক প্রভাষক আবু সাঈদের সন্দেহ হয়। তাৎক্ষণিক ভাবে বিষয়টি তিনি আমাকে অবহিত করেন।

আমি তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে তার প্রকৃত পরিচয় উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের কল্যাণী হাট গ্রামের মোঃ আব্দুল মালেকের ছেলে এবং বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস ও প্রত্নতন্ত বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র বলে জানান। সে মোঃ নুর নবী শাহের পরিবর্তে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করেছে বলে স্বীকারোক্তি প্রদান করে। পরে তাকে ভ্রাম্যমান আদালতে উপস্থিত করলে আদালতের বিজ্ঞ বিচারক ১বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।

বীরগঞ্জ থানার ওসি আবু আককাছ আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বুধবার সকালে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য