দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদটি দীর্ঘ দিন হতে শুন্য রয়েছে। দিনাজপুরের কাহারোলে দীর্ঘদিন যাবৎ সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদ শুন্য থাকার কারণে এই পদে স্থায়ী কর্মকর্তা না থাকায় উপজেলার লোক জন জমি সংক্রান্ত কাজে কর্মে দিনের পর দিন হয়রানি হচ্ছে।

সংবাদ সংস্থা এফএনএস সুত্র মতে, জমি সংক্রান্ত বিভিন্ন কাজে আসা ও ভূমিহীনদের বসতির সমস্যায় থাকা মানুষ স্থায়ী ভূমি কমিশনার না থাকায় সুষ্ঠ সেবা পাচ্ছে না।

উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের খারিজের আবেদন ফাইলে পড়ে থাকলেও সম্পাদন করতে হিমসিম খাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। তবে দপ্তরের কর্মচারীরা বলছেন, ভালো মন্দ দেখেইতো খারিজ করতে হবে। নিয়ম মতে, ৪৫ দিনের মধ্যেই আবেদন কারীর জমির খারিজ ডিসিআর সহ বুঝিয়ে দিতে হবে।

অফিস সুত্রে জানা যায়, কাহারোল উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসলাম মোল্লা। তিনি বিভিন্ন কাজের চাপে সময় কুলিয়ে উঠতে পারছেন না।

ফলে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে দুর-দুরান্ত থেকে আসা মানুষের কাজকর্ম করে নিতে সমস্যা হচ্ছে। কাহারোল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসলাম মোল্লা জানান, অতিরিক্ত দায়িত্ব নিয়ে সেবা দিয়ে যাচ্ছি উপজেলা বাসির।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য