ভারতের চতুর্দশ প্রেসিডেন্ট নির্বাচন শুরু হয়েছে। স্থানীয় সময় সকাল ১০টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। চলবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। নির্বাচনের ভোট গণনা করা হবে ২০ জুলাই।

রাজধানী নয়াদিল্লির পার্লামেন্ট ভবন ও রাজ্যের বিধানসভাগুলোতে লোকসভা, রাজ্যসভা ও বিধানসভার সদস্যরা ভোট দিয়ে তাদের নতুন প্রেসিডন্ট নির্বাচিত করবেন।

প্রেসিডন্ট নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন ইলেক্টোরাল কলেজের ৪ হাজার ৮৯৬ জন সদস্য। এর মধ্যে লোকসভায় ৫৪৩ জন, রাজ্যসভায় ২৩৩ জন এবং স্টেট অ্যাসেম্বলির মোট সদস্য ৪ হাজার ১২০ জন।

এবার প্রেসিডন্ট পদে প্রার্থী দু’জন। বিজেপি নেতৃত্বাধীন (এনডিএ)সরকারের পক্ষ থেকে প্রার্থী রামনাথ কোবিন্দ যিনি এর আগে বিহারের রাজ্যপাল ছিলেন।

আর কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ’র প্রার্থী মীরা কুমার যিনি এর আগে কংগ্রেস শাসনামলে লোকসভার স্পিকার ছিলেন।

দু’জনই দলিত সম্প্রদায়ের। এর আগে কে আর নারায়ণ ছিলেন ভারতের প্রথম দলিত রাষ্ট্রপতি।

অন্যদিকে এর আগে বিজেপির কোনও সদস্য প্রেসিডন্ট হিসেবে নির্বাচিত হননি। তবে সংখ্যার হিসেবে এবার বিজেপি ও তাদের শরিক দলগুলোর যা শক্তি, তাতে তারা বিরোধীদের চেয়ে অনেক এগিয়ে আছে। ফলে কোবিন্দ বেশ এগিয়ে এবং তার জয় অনেকটাই নিশ্চিত বলে ধরে নেয়া হচ্ছে।

বর্তমান বাঙালি প্রেসিডন্ট প্রণব মুখার্জির মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২৪ জুলাই।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য