দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরে বৃহস্পতিবার বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের উদ্যোগে এবং সুইড বাংলাদেশ ও থেরাপের আয়োজনে সাংগঠনিক ও শিক্ষা উন্নয়ন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাবে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের উদ্যোগে ও সুইড বাংলাদেশের সহযোগিতায় প্রতিবন্ধীদের সাংগঠনিক ও শিক্ষা উন্নয়ন কর্মশালা সুইড জেলা শাখার সভাপতি ও জাতীয় কমিটির সদস্য আজহারুল আজাদ জুয়েলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি সংগঠনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব সুশান্ত ভৌমিক বুদ্ধি প্রতিবন্ধীদের কার্যক্রম সম্পর্কে নানা দিক তুলে ধরেন।

কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন সুইড জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামীম কবির, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, থেরাপ বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক বিষয়ক নির্বাহী কর্মকর্তা প্রত্যয় ইকবাল, সুইড এর সাইক্লোজিষ্ট শাহাদাত হোসেন, বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিষ্টিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবুল শাহ নেওয়াজ, মোঃ আসাদ ও মোঃ সৈয়দুর রহমান। কর্মশালায় দিনাজপুর, নীলফামারী, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও ও লালমনিহাট জেলার বিভিন্ন স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও পরিচালনা পর্ষদের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের তথ্য প্রযুক্তির সাথে সম্পৃক্ত করতে হবে। তাদেরকে সেবা দিতে হলে ডাটাবেজ তৈরী করে একটি তথ্য সম্বলিত তালিকা প্রস্তুত করা প্রয়োজন। এই বিজ্ঞান ভিত্তিক ডিজিটাল যুগে প্রতিবন্ধীদেরও যুগোপযোগী মানসম্পন্ন শিক্ষা ব্যবস্থার আওতায় নিয়ে এসে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালু করতে হবে। আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীসহ সকল প্রতিবন্ধীকে তথ্য প্রযুক্তির আওতায় আনতে না পারলে তাদের কাজে লাগানো সম্ভব নয়।

বিশ্বের উন্নত দেশের প্রতিবন্ধীদের যোগ্যতা অনুযায়ী কাজে লাগানোর জন্য জ্ঞান ভিত্তিক ও বিজ্ঞান সম্মত শিক্ষা ব্যবস্থা চালু রয়েছে। আমাদের দেশেও প্রতিবন্ধীদের অবহেলিত থেকে উঠায় নিয়ে আসতে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারী সংস্থাগুলোর উদ্যোগে নানামুখী কর্মসূচী চালু করলেই প্রতিবন্ধীদের স্বাবলম্বী করা সম্ভব হবে। আগামীতে প্রতিবন্ধীরা আর অবহেলিত থাকবে না। তাদেরকে সহায়তা দিতে সরকার ও বেসরকারী সংস্থাগুলো কার্যক্রম শুরু করেছে। এখন প্রয়োজন দেশের সকল স্তরের মানুষের সহযোগিতা করা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য