দি-কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লীগ অব বাংলাদেশ লি. (কাল্ব) এর তেঁতুলিয়া অফিসের প্রোগ্রাম কর্মকর্তা জাকির হোসেন প্রায় ৫১ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়ে উধাও হয়েছেন।

ইউনিয়নের ম্যানেজারের লিখিত অভিযোগে জানা যায়-আটোয়ারী উপজেলার বামুন কুমার গ্রামের ফহিম উদ্দীন আহম্মেদ এর ছেলে জাকির হোসেন তেঁতুলিয়া অফিসে গত ১৫ জুলাই ২০১৪ তারিখ থেকে প্রোগ্রাম কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন কালে সমিতির সদস্যেদের ঋণের কিস্তির টাকা প্রদান ও গ্রহণ করেন।

সমিতির হিসেবে তার গ্রহণকৃত টাকার পরিমাণ প্রায় ১১ লাখ। এ ছাড়া সমিতির অনেক সদস্যের কাছে মুনাফা প্রদানের কথা বলে বিভিন্ন সময়ে আরো ৪০ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেন। সমিতির টাকা গ্রহণ করলেও কৌশলে অফিসের রশিদ প্রদান করেনি। ইতোমধ্যে গত ২৯ জুন/১৭ খ্রি. তেঁতুলিয়া অফিস করে ৩০ জুন/২০১৭ তারিখে গ্রামের বাড়িতে গিয়ে আত্মগোপন করেন।

তেঁতুলিয়া শাখার ম্যানেজার ও সমিতির সভাপতি/সম্পাদক যৌথভাবে তার আত্মীয়-সস্বজনদের বাড়িতে খোঁজ খবর নিলে তাকে বাড়িতে পাননি। সমিতির সদস্যেদের বিপুল পরিমাণ টাকা নিয়ে আত্মগোপন করায় মূলধন হারানোর ভয়ে অনেক সদস্য বিপাকে পড়েছেন।

এব্যাপারে দি-কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লীগ অব বাংলাদেশ লি. (কাল্ব) এর তেঁতুলিয়া শাখার ম্যানেজার জাহাংগীর হোসেন বিক্রম মুঠোফোনে এই প্রতিবেদককে বলেন, ১২তারিখ/১৭ সন্ধ্যায় সমিতির অফিসে পরিচালনা কমিটির এক জরুরী সভার সিদ্ধান্তক্রমে তার বিরুদ্ধে সর্বমোট ৫১ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তেঁতুলিয়া থানায় একটি লিখিত এজাহার দায়ের প্রস্তুতি চলছে।

তেঁতুলিয়া মডেল থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ সরেস চন্দ্র বলেন-তেঁতুলিয়া ‘কাল্ব’ এর প্রোগ্রাম কর্মকর্তা টাকা পয়সা নিয়ে আত্মগোপন করেছে শুনেছি। বিবাদীর বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য