১১জুলাই কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ডিসকভারী চ্যানেলের দৃশ্য বাস্তবায়িত করতে গিয়ে গলায় ফাঁস লেগে এক মেধাবী শিশুপুত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এলাকাবাসী ও পরিবার জানান, রাজারহাট বাজারের অদুরে চাকিরপশার তালুক গ্রামে আশা সংস্থার লোন অফিসার নজরুল ইসলামের পুত্র ও রাজারহাট শিশু নিকেতনের কেজি প্রথম শ্রেনীর ছাত্র প্রত্যয় (৮) ভাড়া বাসায় থাকতো। সেখানে প্রতিদিন প্রত্যয় টিভিতে ডিসকভারী চ্যানেলে বেয়ার গেইলস্রে কলা কৌশল দেখে অনুসরণ করে তা প্রমাণ করার জন্য রুমের ভিতর উঁচু স্থানে দঁড়ি, ওড়না ও কাপড় ঝুলে দিয়ে ঝুলতো।

ঘটনার দিন গত ১০জুলাই সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রত্যয় ঘরের মধ্যে সকলের অগোচরে পায়ে ও গলায় ওড়না পেচিয়ে উচুঁ স্থানে ঝুলতে গিয়ে পায়ের নিচ থেকে টুল সড়ে যায়। এতে গলায় ফাঁস লাগে। তার গোঙ্গানীর শব্দ শুনে পাশের রুম থেকে তার মা দৌড়ে এসে চিৎকার দিয়ে ফাঁস খুলে দেয়। পরে এলাকাবাসীরা ছুটে এসে জ্ঞান হারানো অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রাজারহাট হাসপাতালে নিয়ে যায়। তার অবস্থার অবনতি হলে ডাক্তার দ্রুত রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন।

ওই মেডিকেলের কর্তব্যরত ডাক্তার গভীর রাতে তাকে মৃত ঘোষনা করেন। প্রত্যয়ের বাড়ী কুড়িগ্রাম নাজিরা এলাকায়। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে শোকের ছায়া নেমে আসে। ১১জুলাই তাকে তার পারিবারিক কবর স্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয় বলে চাকিরপশার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহিদ সরোওয়ার্দ্দী বাপ্পী জানান। এদিকে প্রত্যয়ের অকাল মৃত্যুতে তার বিদ্যালয়ে শোক পালন করে তার রুহের মাগফেরাত কামনায় ১ মিনিটি নিরবতা পালন করে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য