মোঃ আবেদ আলী, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) থেকেঃ বীরগঞ্জ পৌরসভায় যুগযুগ ধরে জনতার দাবি পুরন না হওয়ায় সিএন্ডবি’র পাকা রাস্তায় আমন ধানের রোপা লাগিয়ে অভিনব প্রতিবাদ জানিয়েছেন ভোক্তভোগি মানুষ।

জানা গেছে, পৌরসভার প্রানকেন্দ্র বীরগঞ্জ-দেবীগঞ্জ সড়ক যুগযুগ ধরে অবহেলিত খনা-খন্ধকে পরিপূর্ণ। যান-বাহন বা মানুষ চলাচলের অযোগ্য। দীর্ঘ দিন ধরে পৌরবাসী ও এলাকার জনগন রাস্তাটি পূণঃ নির্মানের (সংস্কার) দাবি জানিয়ে আসছে। পৌরসভা ও এলজিইডি জনতার দাবি পুরন করতে পারছে। পৌরসভা ও এলজিইডি’র কতৃপক্ষ বলছেন রাস্তাটি কাগজ-কলমে সিএন্ডবির তাই তারা কোন কিছুই করতে পারছে না।

আকাশের বৃষ্টি নামলে খালি মানুষ, বাই সাইকেল, মোটর সাইকেল, রিক্সা-ভ্যান, অটো চার্জার নিয়ে রাস্তা চলাচল কষ্টসাধ্য ব্যাপার হয়ে দাড়ায়। স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসার শতশত ছাত্র-ছাত্রী যান-বাহনের ছিটকেপরা কাঁদা-পানি নিয়ে স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসায় যেতে পারে না। অবশেষে লেখাপড়া বাদ দিয়ে নোংরা কাপরে বাড়ী ফিরতে হয় তাদেরকে।

এ ছাড়াও যাতায়াতকারী দলে দলে হাটুরে কাপর-চোপর নষ্ট করে তাদের বাড়ী ফিরতে হয়। মনের অজান্তেই মোটর সাইকেল, প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস, ট্রাকটর, ট্রাক, বাস-কোচ কাঁদা-পানি ছিটকে দিয়ে জামা-কাপর নষ্ট করে দ্রুত পালিয়ে যায় বা দাড়িয়ে থাকলেও কি করার বা বলার থাকে।

বীরগঞ্জ-দেবীগঞ্জ সড়ক মেরামতের জন্য দীর্ঘ দিন ধরে দাবি জানিয়ে আসলেও অজ্ঞাত কারনে জনগনের দাবি পুরন করা হচ্ছে না। তাই পৌরসভার ভোক্তভোগি মানুষ চলাচলের অযোগ্য সিএডবি’র পাকা রাস্তায় যুগযুগ আমন ধানের রোপা লাগিয়ে অভিনব প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

পৌরসভা ও এলজিইডি কতৃপক্ষ বলছেন, সিএন্ডবি রাস্তাটি কাগজ-কলমে কেবল মাত্র তাদের বরাবর হস্তান্তর করলেই তারা মেরামত বা পূণঃ নির্মান করেতে পারবেন। রাস্তা মেরামতের দাবি তোলা হলে মাঝে-মধ্যে সিএন্ডবি’র একটি ট্রাক এসে ক্ষেত্র বিশেষ পাথর-বালি, ভাঙ্গা ইট বা মাটি বসিয়ে পিজ ঢেলে দিয়ে খনা-খন্ধক পুরন করে চলে যায়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য