সংবাদ সম্মেলনঃ প্রতিনিধি দিনাজপুর সংবাদাতাঃ জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধেই জমির উদ্দীন গংরা ষড়যন্ত্র করে আমাদের মিথ্যা এসিড মামলায় ফাঁসিয়েছে। । মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে বরঞ্চ তারাই আমাদের পুলিশী হয়রানীসহ নানান ভাবে হুমকী ধমকী দিয়ে বেড়াচ্ছে। গত ৩ জুলাই সংবাদ সম্মেলন করে মিথ্যা তথ্য সরবরাহের মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর সংবাদ প্রকাশ করেছে যা অৗদো সত্য নয়।

রবিবার দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেছেন,খানসামা উপজেলার গোয়ালডিহি গ্রামের মোঃ আবুল কালামের পুত্র মোঃ জুয়েল রানা। তিনি লিখিত বক্তব্যে আরো বলেছেন, জমির উদ্দীনের বিরুদ্ধে খানসামা থানায় ডাকাতিসহ একাধিক মামলা রয়েছে,আর সেই ভালো মানুষ সেজে অন্যকে ফাঁসানোর চষ্টা চালাচ্ছে।

প্রকৃত ঘটনা হচ্ছে জমির উদ্দীন কিছুদিন পূর্বে মোঃ রশিদুল ইসলামের নিকট রেজিষ্ট্রেীর মাধ্যমে জমি বিক্রি করেছেন হঠাৎ করেই ওই জমিতে তার বোনের অংশ রয়েছে দাবী করে আবারো টাকা দাবী করেন। টাকা দিতে অস্বীকার করার পর হতে জমির উদ্দীন রশিদুলসহ তার নিকট আত্বীয়দের নানান ভাবে হয়রানী করে আসছে। এরই অংশ হচ্ছে নিজের শরীরে নিজে কিংবা তার লোক দ্বারা এসিড নিক্ষেপ করে প্রতিপক্ষকে এসিড মামলায় ফাঁসিয়ে হয়রানী করা।

সংবাদ সম্মেলনে দাবী করা হয়, জমির উদ্দীনের পুত্র হারুন অর রশিদের করা এসিড হামলা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোঃ দুলাল হোসেন বিষয়টিতে ব্যাপক তদন্ত ও জিজ্ঞাসাবাদ করেও আসামীদের বিরুদ্ধে কিছইু বের করতে পারেননি,যে কারনে তাদের গ্রেফতার করেননি। এলাকার লোকজন এই মিথ্যা মামলার পক্ষে নেই তাই কোন কুলকিনারা করতে না পেরে গত ৩ জুলাই জমির উদ্দীন মিথ্যা তথ্য পরিবেশনের মাধ্যমে দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক সাজানো ভিত্তিহীন মিথ্যা ও বানোয়াট মামলার কথা জানিয়ে সাংবাদিকদের বিভ্রান্ত করেছেন।

আমরা এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সাংবাদিকদের সঠিক তথ্য জানাতে চাই সেটি হচ্ছে,জমির উদ্দীন একজন দুর্ধান্ত ডাকাত তার বিরুদ্ধে খানসামা থানায় একাধিক বিভিন্ন অপরাধমুলক মামলা রয়েছে। এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আমাদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর দায়ে তদন্ত সাপেক্ষে তাকে (জমির উদ্দীন ও তার পুত্র হারুন)কে গ্রেফতারের দাবী করছি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মোঃ জুয়েল রানা এবং উপস্থিত ছিলেন, মোঃ জলিলুর রহমান,মোজাম্মেল হক,আবুল কালাম আজাদ,ওসাই আলী,মোঃ আতিকুর রহমান,মোঃ সমির উদ্দীন,মোঃ রশিদুল ইসলামসহ অন্যান্যরা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য