আইন ও সামাজিক রীতি উপেক্ষা করে ইন্দোনেশিয়ায় ১৬ বছর বয়সী এক কিশোর ৭০ বছর বয়সী এক নারী বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।

বিবিসি জানিয়েছে, অসম এই বিয়ের একটি ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ার পর ঘটনাটি সবার নজর কাড়ে।

কিশোর সেলামতের বিয়ের বয়স না হলেও দক্ষিণ সুমাত্রার ওই গ্রামের অধিপতিরা জানিয়েছেন, সেলামত এবং সত্তোরোর্ধ নারী রোহাইয়া বারবার আত্মহত্যার হুমকি দিতে থাকায় বাধ্য হয়ে তারা বিয়ের অনুমতি দেন।

ইন্দোনেশিয়ার আইন অনুযায়ী, বিয়ের জন্য মেয়ের বয়স অন্তত ১৬ আর ছেলেদের ১৯ হতে হবে।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, সেলামত ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত থাকার সময় রোহাইয়া তার সেবা করেন; সেসময়ই দুজন ঘনিষ্ঠ হন।

গ্রামটির প্রধান সিক অনি এক সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘ব্যভিচারের পাপ এড়াতে’ তারা দুজনের বিয়ে দিয়েছেন।

আইন অনুযায়ী ছেলে নাবালক হওয়ায় বিয়েটি ‘গোপনে দেওয়া হয়েছে’ বলেও জানান তিনি।

সেলামতের বাবা কয়েক বছর আগে মারা যান, এরপর তার মা আবার বিয়ে করেন।

রোহাইয়ার এটি তৃতীয় বিয়ে বলেও স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, আগের দুই ঘরে তার বেশ কয়েকটি ছেলেমেয়েও আছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য