দিনাজপুরের খানসামায় দুই মটরসাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষে মোঃ আহসান হাবীব লিয়ন (২৩) নামে এক বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে মোঃ একরামুল হক (৩৮) এবং একজন অজ্ঞাত (৩২)।

নিহত মোঃ আহসান হাবীব লিয়ন খানসামা উপজেলার খামারপাড়া ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের মোঃ মতিউর রহমানের ছেলে এবং বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় দ্য পিপলস ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর শেষ বর্ষের ছাত্র।

আহত মোঃ একরামুল হক একই গ্রামের মোঃ আব্দুল জলিলের ছেলে। এ ঘটনায় অপর আহতের নাম জানা যায়নি।

গত সোমবার বিকালে খানসামার ডাঙ্গাপাড়া সাওতাল পাড়া মোড়ে বিপরীতগামী আরেক মটর সাইকেলের সাথে মুখোমুখী সংঘর্ষে গুরুত্বর ভাবে ৩জন আহত হয়। সোমবার দিবাগত রাত ২টায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোঃ আহসান হাবীব লিয়ন মারা যায়।

স্থানীয় মোঃ নুরনবী ইসলাম জানায়, সোমবার বিকেলে খানসামার খামারপাড়া ইউপির ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় দ্য পিপলস ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর শেষ বর্ষের ছাত্র মোঃ আহসান হাবীব লিয়ন প্রতিবেশী মোঃ একরামুল হককে সাথে নিয়ে মটরসাইকেল যোগে বাড়ীর পাশে বাজারে যাচ্ছিল।

এসময় ডাঙ্গাপাড়া সাওতাল পাড়া মোড়ে বিপরীতগামী একটি মটর সাইকেলের সাথে মুখোমুখী সংঘর্ষে গুরুত্বর ভাবে ৩জনই আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে রাতে ৩জনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোঃ আহসান হাবীব লিয়ন মারা যায়।

খামারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ সাজেদুল হক সাজু দুই মটরসাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য