গেল কয়েক মাস ধরে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র শিল্পে ব্যক্তিগত আক্রোশের ঝড় বয়ে যাচ্ছে। অপু বিশ্বাস থেকে শুরু করে কয়েক দফায় শাকিবকে বয়কট, এফডিসির নির্বাচন, তারকাদের ব্যক্তিগত সমালোচনায় মুখর বাংলার শোবিজ অঙ্গন। এবার যেন কাঁটা ঘায়ে শুকনো মরিচের ঝাল দেয়ার মতো করে নায়ক শাকিবের শিক্ষাগত যোগ্যতা, তার কর্মকান্ড নিয়ে ধুয়ে দিলেন নায়িকা নিপুন।

শিল্পীদের সম্মান দিয়ে কথা বলার জন্য নায়ককে পরামর্শ দেন তিনি। একটি বেসরকারি টিভিতে সাক্ষাৎকারে শাকিবের দেয়া বক্তব্যের জেরে ফেসবুক স্ট্যাটাসে এসব কথা লিখেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী নিপুন।

নিপুনের দাবি, শাকিব খানের আচরণে তিনি বিরক্ত, ইন্ডাস্ট্রির নায়িকাদের হেয় করে কথা বলা, নায়িকারা শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলার প্রতিবাদে তিনি এসব কথা ব্যক্ত করেছেন।

স্ট্যাটাসে নিপুন বলেন, ‘মিডিয়ার সামনে অন্য আর্টিস্টদের সম্মান দিয়ে কথা বলবেন। আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা? ফ্যামিলি ব্যাকগ্রাউন্ড? মনে হয় আপনার ১১ বছর আগের কথা ভুলে গেছেন। ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা ইমিগ্রেশনে ইংরেজীতে যা কিছুই জিঙ্গেস করত আপনি না বুঝেই “ইয়েস” “নো” বলতেন। আপনি এতই শিক্ষিত যে ‘ইডি’ (এম্বারকেশন-ডিসএম্বারকেশন) কার্ড পূরন করতে পারতেন না।’

জ্যেষ্ঠ অভিনয় শিল্পীদের প্রতি শাকিবের বাজে আচরণ অভিযোগ করে নিপুন লিখেছেন, ‘আপনি শুটিং সেটে রাজ্জাক আঙ্কেলকে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত বসিয়ে রেখেছিলেন। শেষ পর্যন্ত সেটে আর আসেননি। আরও কতজনকে যে অসম্মান করেছেন তার হিসেব নেই। ভুলে গেছেন? ইন্ডাস্ট্রি তে যা খুশি তা করেছেন আপনি। সিনিয়ররা আপনার ব্যবহারে অতিষ্ঠ। আপনার জন্যই তো ওনারা ইন্ডাস্ট্রিতে নিয়মিত না।’

পরামর্শ দিয়ে নিপুর বলেন, ‘শাকিব খান, বাংলা সিনেমা নিয়ে আপনি যে নোংরা রাজনীতি করছেন তা নিজের ও কিছু দেশি-বিদেশি স্বার্থান্বেষী মহলের স্বার্থ রক্ষার জন্য করছেন, যা বাংলাদেশের চলচ্চিত্র শিল্পের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। বাংলা চলচ্চিত্র নিয়ে নোংরা রাজনীতি বাদ দেন।’

স্ট্যাটাসের শেষ অংশে শাকিবের স্ত্রী ও অভিনেত্রী অপু বিশ্বাসের চেয়ে বুবলীকে বেশি প্রাধান্য দেয়ায় সমালোচনা ও পাইরেসির সঙ্গে শাকিব খান জড়িত বলেও মন্তব্য করেছেন নায়িকা নিপুন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য