দখলকৃত পশ্চিম তীরের প্রত্যন্ত একটি গ্রামে ইসরায়েল ডাচ সরকারের অর্থায়নে নির্মিত কয়েকটি সৌর শক্তি প্যানেল জব্দ করেছে। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে নেদারল্যান্ডস। সোমবার মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট মনিটরের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা যায়। ওই গ্রামে গত বছর বেশকিছু সৌর শক্তির প্যানেল স্থাপন করেছিল তারা। বুধবার ইসরায়েল সেগুলো জব্দ করে।

এক বিবৃতিতে ডাচ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই ঘটনায় তারা ইসরায়েলের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। ডিজেল ও সৌরশক্তি ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপন্ন করা যায় এমন প্যানেল তৈরি করেছিলেন নেদারল্যান্ডস।

ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম হারেতজের প্রতিবেদন মতে, বেথেলহেমে এই প্যানেলগুলো স্থাপন করতে ৫ লাখ ইউরো ব্যয় করেছিলো ডাচ সরকার। আর জাবেত আল ধিব গ্রামেই্ খরচ হয় ৩ লাখ ৫০ হাজার ইউরো।

ইসরায়েলকে এই প্যানেলগুলো ফিরিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে নেদারল্যান্ডস। ডাচ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, এই বিষয়ে কি পদক্ষেপ নেওয়া যায় সেটা পর্যালোচনা করে দেখছে তারা।

জাবেত আল ধিবে এলাকায় প্রায় ১৫০ ফিলিস্তিনি বাস করে। এর পাশেই রয়েছে ‘অবৈধ’ নোকেদিম বসতি যেখানে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আভিগোর লিবারম্যান বাস করেন। তার পাশেই আরেকটি ‘অবৈধ’ এল ডেভিড বসতি রয়েছে।

ইসরায়েলি আইন অনুসারেই এই বসতিগুলো অবৈধ হলেও এখানে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয়। রয়েছে অন্যান্য অবকাঠামোগত সুবিধাও। সূত্র: মিডল ইস্ট মনিটর

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য