য্ক্তুরাষ্ট্রগামী বিমানে বসে ল্যাপটপসহ বড় ইলেক্ট্রনিকস ডিভাইস ব্যবহারের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা থেকে আবু ধাবিকে অব্যাহতি দিয়েছে মার্কিন প্রশাসন।

তারা দাবি করেছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিমান সংস্থা ইতিহাদ এয়ারওয়েজ তাদের বিমানে প্রয়োজনমাফিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করায় আবু ধাবি থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র সরকারের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ইতিহাদ এয়ারওয়েজ। অবশ্য দুবাইসহ বিভিন্ন দেশের ৯টি বিমানবন্দরে নিষেধাজ্ঞা এখনও বহাল থাকছে।

গত মার্চে বিশ্বের ১০টি বিমানবন্দর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া বিমানযাত্রীদের ল্যাপটপসহ, ট্যাবলেট, ডিএসএলআর ক্যামেরাসহ বড় ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দেয় স্মার্টফোনের চেয়ে অপেক্ষাকৃত বড় ডিভাইসগুলো ভ্রমণের সময় নেওয়া যাবে না, সেগুলো ব্যাগে রেখে দিতে হবে। কেননা, যুক্তরাষ্ট্রের আশঙ্কা, এসব ডিভাইসের মধ্যে বিস্ফোরক থাকার ঝুঁকি আছে এবং তা অভিনব পদ্ধতিতে সন্ত্রাসী কর্মকা-ে ব্যবহার হতে পারে। পরে যুক্তরাষ্ট্রের পথ ধরে যুক্তরাজ্যও একইরকমের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

তবে রবিবার (২ জুলাই) সংযুক্ত আরব আমিরাতের এয়ারলাইন্স ইতিহাদ কর্তৃপক্ষ জানায়, এর মূল বিমানবন্দরকে নিষেধাজ্ঞা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটির অন্তর্গত ট্রান্সপোর্ট সিকিউরিটি এডমিনিস্ট্রেশনের পক্ষ থেকে যাচাই বাছাই পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানানো হয়। এর পরপরই যুক্তরাষ্ট্রগামী ইতিহাদ এয়ারওয়েজের বিমানের যাত্রীদের ল্যাপটপ ও বড় ডিভাইস ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটির মুখপাত্র ডেভিড লাপান বলেন, ‘আবুধাবিতে যে পরিমাণ নিরাপত্তামূলক পদক্ষেপ নেওয়ার প্রয়োজন ছিল সে অনুযায়ী পুরো মাত্রার ব্যবস্থা বাস্তবায়ন করতে দেখা গেছে।’

যাচাই বাছাই ঠিকমতো হচ্ছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ করতে মার্কিন মনিটররা পরবর্তীতে আবারও ওই বিমানবন্দর পরিদর্শন করবেন বলেও জানান তিনি।

এদিকে আবুধাবির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হলেও এখনও যেসব বিমানবন্দর নিষেধাজ্ঞার আওতায় রয়েছে সেগুলো হলো-জর্ডানের আম্মান, কুয়েতের কুয়েত সিটি, মিসরের কায়রো, তুরস্কের ইস্তাম্বুল, সৌদি আরবের রিয়াদ ও জেদ্দাহ, মরক্কোর কাসাব্লানকা, কাতারের দোহা এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য