অপহরণের ২২ দিন পর কলেজ ছাত্রী নুর নাহারকে (২২) গাজীপুরের কালিয়াকৈর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সাথে হাফিজুর রহমান নামের এক অপহরণকারীকেও গ্রেফতার করা হয়। গতমঙ্গলবার তাদের সাংবাদিকদের মুখোমুখি করলে বেড়িয়ে আসে গরুত্বপূর্ণ তথ্য।

পুলিশ বলছে, শুধু অপহরণ নয়, তাকে জোরপূর্বক বিয়ে করে ইচ্ছার বিরুদ্ধে অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে অপহরণকারীরা। এরপরও তার পরিবারের নিকট থেকে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে তারা। ঘটনাটি নিয়ে রবিবার কয়েকটি জাতীয় দৈনিকে সংবাদ প্রকাশ হলে প্রশাসনের টনক নড়ে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রৌমারী থানার উপ-পরিদর্শক জিল্লুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গাজীপুরের কালিয়াকৈর থেকে ওই কলেজছাত্রীকে উদ্ধার ও অপহরণের সাথে জড়িত মামলার প্রধান আসামী হাফিজুরকে আটক করা হয়। আটককৃত হাফিজুরকে আদালতে হাজির করে আরও তথ্যের জন্য রিমান্ড আবেদন করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ মে ডিগ্রি পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে অপহৃত হন কলেজছাত্রী নুর নাহার। পরে ওই ছাত্রীর বাবা নুর হোসেন বাদি হয়ে উত্তর আলগারচর গ্রামের বখাটে হাফিজুর রহমান (৩৫), জাইদুল ইসলাম (২৭) ও সৈয়দ আলী (১৯) এর নামে রৌমারী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য