সংবাদ সম্মেলনঃ ক্ষমতাসীন দলের সংসদ এবং স্থানীয় প্রশাসনের ছত্রছায়ায় ভ’মিদস্যুরা ফুলবাড়ী উপজেলার পুখরীডাঙ্গা গ্রামের অসহায় সংখ্যালুঘু পরিবারের ৮৭ শতক জমিতে খনন করা পুকুরসহ বাড়ী ও জমি দখল করার ষড়যন্ত্র করছে।

দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত ও মৌখিক ভাবে উপরোক্ত অভিযোগ করেছেন ফুলবাড়ি উপজেলার পুখুরী(ডাঙ্গাপাড়া) গ্রামের সন্তোষ চন্দ্র রায়ের পুত্র বিকাশ চন্দ্র রায়। তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, ফুলবাড়ি উপজেলার পুখুরী মৌজার ১৬৫৩ নং দাগের ১ দশমিক ৭৪ একর সম্পত্তির মধ্যে ৮৭ শতক সম্পত্তি শ্রী সুভেন্দু নাথ রায় চৌধুরীর নিকট ১৯৭৭ সালের ১৮ মে সন্তোষ কুমার ক্রয় করেন। তখন থেকে দীর্ঘ ৪০ বছর তারা পারিবারিক ভাবে ইজমাইলী সম্পত্তি হিসেবে ওই সম্পত্তি ভোগ দখল করে আসছে।

এরই মধ্যে ভুলবশত উক্ত সম্পত্তিটি অর্পিত(ক) তালিকাভুক্ত হইলে কবলা গ্রহীতারা এ বিষয়ে অর্পিত ট্রাইবুনালে মোকদ্দমা আনয়ন করেন, মামল নাং ৩০৫/১২। বর্তমানে মামলাটি আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। এছাড়াও ওই জমি সংক্রান্ত্র বিষয়ে মালিকানার দাবীসহ অর্পিত সম্পত্তি মর্মে মামলা চলছে জানিয়ে ইউএনও কে অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, উল্লেখিত জমির পার্শ্বেই সুযোগ সন্ধানী ভ’মিদস্যু আব্দুস সামাদ ও মজিবর রহমান গং এর জমি থাকার সুবাদে তারা পুকুরটি গ্রাস করার ষড়যন্ত্র শুরু করে। এজন্যে তারা গত ৫জুন ২০১৭ তারিখে পুলিশের উপস্থিতিতেই মধ্যরাত্রীতে পুকুরের (১২০ মন) সমস্ত মাছ মেরে নেয় এবং ৭/৬/১৭ তারিখে সকাল ১১টায় প্রকাশ্যে দিবালোকে পুকুরের প্রায় ৫০ মন মাছ মেরে নিয়ে যায়।

এই ঘটনার পর কবলা গ্রহীতা জমির মালিকেরা বিজ্ঞ আদালতে ১৪/২০১৭(দ্রুত বিচার আইন) ও ৭১সি/২০১৭(ফুলবাড়ি) নম্বও মামলা করেন। সরকার দলীয় মন্ত্রী ও স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগীতায় ভ’মিদস্যু আব্দুস সামাদ জমির প্রকৃত মালিক হয়রানী করার উদ্দেশ্যে একটি মামলা করেছে। মামলা নং জি আর ১৮১/১৭। তিনি বলেন,সমস্যা নিয়ে আমরা অনেকস্থানে দৌড়াদৌড়ি করেছি সমাধান হচ্ছেনা।

বিকাশ চন্দ্র রায় সংবাদ সম্মেলনে জানান,ভ’মিদস্যুরা প্রতিনিয়ত জমির মালিককে হুমকী দিচ্ছে জমি ছেড়ে দিতে অন্যথায় তাদের সন্ত্রাসী ও প্রশাসনিক সহযোগীতায় ভারতে তাড়িয়ে জায়গার দখল নিয়ে নেবে। বর্তমানে তারা অসহায়। সংখ্যালুঘু হিন্দু পরিবারের জমি রক্ষার জন্যে তারা বঙ্গবন্ধু কন্যা ও সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সাহায্য প্রত্যাশা করছেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন,রামাই সরেন,বিজয় চন্দ্র রায়,মন্টু চন্দ্র রায়,সদানন্দ রায়,শ্যামল চন্দ্র রায়,সাইদুল ইসলাম,হোসনী বাবু ও আব্দুল হক প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য