রেল স্টেশনে সংঘর্ষ লাগানোর অভিযোগে শাহরুখ খানের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে ভারতে। রাজস্থানের কোটা রেলওয়ে স্টেশনের এক খাবার বিক্রেতা শাহরুখের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ দায়ের করেছেন। কী অপরাধ বলিউড বাদশার!

‘রইস’ ছবির প্রোমোশনের জন্য মুম্বাই থেকে আগস্ট ক্রান্তি এক্সপ্রেসে করে শাহরুখ যখন দিল্লি যাচ্ছিলেন, তখন রাজস্থানের কোটা স্টেশনে তিনি সংঘর্ষ লাগান বলে বিক্রম সিং নামে ওই অভিযোগকারীর দাবি। গত ২৪ জানুয়ারি মুম্বাই থেকে ওই ট্রেনে চেপে দিল্লির উদ্দেশে রওনা দেন শাহরুখ।

স্টেশনে বলিউড বাদশাকে এক ঝলক দেখতে উপচে পড়ে ভিড়। বিক্রম সিং ওই স্টেশনে ঠেলাগাড়িতে করে খাবার বিক্রি করেন। সে দিনও তিনি ঠেলাগাড়ি নিয়ে প্ল্যাটফর্মে হাজির ছিলেন।

বিক্রমের অভিযোগ, আগস্ট ক্রান্তি এক্সপ্রেস কোটা স্টেশনে থামার পর শাহরুখ নিজের ফ্যানদের উৎসাহিত করতে ট্রেনের দরজার কাছে এসে দাড়ান। তারপর সেখান থেকে হাত নেড়ে গিফট প্যাকেটস ছোড়েন। তাতে শুরু হয় হুড়োহুড়ি। গিফট প্যাকেট পাওয়ার জন্য ভক্তরা এমন হুড়োহুড়ি শুরু করেন যে প্ল্যাটফর্মে পদপিষ্ট হওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়।

সেই গোলমালে বিক্রম সিংয়ের ট্রলি উল্টে যায় বলে তার অভিযোগ। ক্যাশবাক্স থেকে টাকাও নাকি খোওয়া যায়। ধাক্কায় পড়ে গিয়ে তিনি নিজেও গুরুতর জখম হন। এই ঘটনাকে তিনি সংঘর্ষ লাগানো ছাড়া অন্য কিছু বলে মানতে নারাজ।

আর এই অপরাধে শাহরুখ খানের বিরুদ্ধে ১৪৭ ধারায় সংঘর্ষ লাগানো, ১৪৯ ধারায় বেআইনি জমায়েত, ১৬০-এ শান্তিভঙ্গ, ১২০(বি) ধারায় অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র-সহ একাধিক অভিযোগ দায়ের হয়েছে। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য