নির্মাতা ইমতিয়াজ আলী তাঁর পরিচালিত নতুন ছবি নিয়ে খুব শিগগির দর্শকদের সামনে হাজির হচ্ছেন। আগামি আগস্টে মুক্তি পাবে শাহরুখ খান ও আনুশকা শর্মা অভিনীত তাঁর এই ছবি। প্রাথমিকভাবে এর নাম রাখা হয়েছে ‘রিং’। কিন্তু পরে পাল্টে রাখা হয় ‘যাব হ্যারি মেট সেজাল’।

চলচ্চিত্রের নতুন এই নামের কৃতিত্ব অভিনেতা রণবীর কাপুরের। ছবির জন্য এমন জুতসই নাম বেছে দেওয়ায় রণবীরকে নগদ ৫০০০ রুপি দিয়েছেন শাহরুখ। পরে ‘কিং খান’ নিজেই রণবীরের সঙ্গে একটি ছবি তুলে টুইটারে প্রকাশ করেছেন।

গত শুক্রবার ইমতিয়াজ আলীর ৪৬তম জন্মদিনে পরিচালকের বাড়িতে বসেছিল তারার মেলা। শাহরুখ খান, রণবীর কাপুর, দীপিকা পাড়ুকোন, আলিয়া ভাট, রাজকুমার হিরানিসহ বলিউডের অনেকেই সেখানে উপস্থিত ছিলেন। সেখানেই রণবীর কিং খানের কাছে পুরস্কার চেয়ে বসেন।

মনে প্রশ্ন জাগতে পারে, ইমতিয়াজ থাকতে শাহরুখের কাছে কেন পুরস্কার চাইলেন রণবীর? কারণ, ‘যাব হ্যরি মেট সেজাল’-এর পরিচালক ইমতিয়াজ আলী হলেও প্রযোজক শাহরুখ-পতœী গৌরী খান। দাবি মেটাতে রণবীরকে ঠিকই নগদ অর্থ বুঝিয়ে দিয়েছেন শাহরুখ। বলেছেন, তিনি যেন করণ জোহরকে তাঁর ভাগ বুঝিয়ে দেন। কারণ, এই নামের ‘যাব’ শব্দটি আবার দিয়েছেন করণ।

টুইটারে প্রকাশিত ছবির ক্যাপশনে শাহরুখ লিখেছেন, ‘এই নাও জগগা জাসুস শোধ করে দিলাম। করণকে তাঁর অংশ বুঝিয়ে দিয়ো।’ এই টুইট দেখে করণও মজা করে লিখেছেন, ‘হ্যাঁ রণবীর, আমি কিন্তু অপেক্ষা করছি। এখান থেকে ১২৫০ রুপি আমি পাব।’

ইমতিয়াজ আলী পরিচালনায় নাম লেখান ২০০৫ সালে। সে বছর তাঁর ‘আহিস্তা আহিস্তা’ ও ‘সোচা না থা’ নামের দুটি চলচ্চিত্র মুক্তি পায়। কিন্তু তাঁকে ব্যাপক পরিচিতি ও জনপ্রিয়তা এনে দেয় ২০০৭ সালে মুক্তি পাওয়া ছবি ‘যাব উই মেট’। এই ছবির নায়ক নায়িকা ছিলেন কারিনা কাপুর খান ও শহীদ কাপুর।

আর রণবীরকে নিয়ে ইমতিয়াজ ‘রকস্টার’ ও ‘তামাশা’ নামের দুটি ছবি নির্মাণ করেছিলেন। সবাই আশা করছে, এই নির্মাতার আসন্ন ছবিও দর্শকদের সন্তুষ্ট করবে। হিন্দুস্তান টাইমস

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য