উগ্র তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের হাত থেকে আফগানিস্তানের তোরা বোরা পার্বত্য এলাকা পুনরুদ্ধার করেছে আফগান সেনাবাহিনী। জঙ্গিরা পাকিস্তান সীমান্তবর্তী এই এলাকার দখল নেয়ার মাত্র দু’দিনের মাথায় সেটি পুনর্দখল করল কাবুল।

আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল তারিক শাহ বাহরামি বলেছেন, পাহাড়ের গুহা ও টানেলগুলোতে ভয়াবহ সংঘর্ষের পর দায়েশের হাত থেকে নানগারহার প্রদেশের এই গুরুত্বপূর্ণ পাহাড়ি এলাকা পুনরুদ্ধার করা হয়েছে।

প্রতিদ্বন্দ্বী তালেবান জঙ্গিদের সঙ্গে বেশ কয়েকদিন ধরে লড়াই করে গত বৃহস্পতিবার তোরা বোরা’র দখল নিয়েছিল আইএসআইএল বা দায়েশ। পাহাড়ি এই এলাকাটি তালেবানের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত এবং তারা পাকিস্তান থেকে অস্ত্র আনা নেয়ার কাজে এই এলাকাটি ব্যবহার করে থাকে।

বাহরামি জানিয়েছেন, তোরা বোরা’য় সেনাবাহিনীর পুনরুদ্ধার অভিযানে ২২ দায়েশ জঙ্গি নিহত ও ১০ সন্ত্রাসী আহত হয়েছে। তিনি অবশ্য সংঘর্ষে সেনাবাহিনীর পক্ষে সম্ভাব্য হতাহতের খবর জানাননি।

দায়েশ জঙ্গি গোষ্ঠী আন্তর্জাতিকভাবে আইএসআইল বা আইএস নামেও পরিচিত। এই জঙ্গি গোষ্ঠীর মূল তৎপরতা ইরাক ও সিরিয়ায় হলেও আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলে নিরাপত্তাহীনতার সুযোগ নিয়ে গত কয়েক বছর ধরে তারা দেশটিতে ঘাঁটি গেড়েছে। আফগানিস্তানে তালেবানের অন্তর্দ্বন্দ্বের সুযোগ নিয়ে তারা নিজেদের কথিত খেলাফতের ‘খোরাসান প্রদেশ’ প্রতিষ্ঠা করতে চায়।

দায়েশ আফগানিস্তানের বেসামরিক নাগরিক ও নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে এ পর্যন্ত বেশ কয়েকটি ভয়াবহ হামলা চালিয়েছে। রাজধানী কাবুলের কূটনৈতিক এলাকায় সম্প্রতি এই জঙ্গি গোষ্ঠীর শক্তিশালী বোমা হামলায় অন্তত ১৫০ ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য