দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ১২ জুন সোমবার কেবিএম কলেজ মিলনায়তনে বাংলাদেশ জাতীয় যহ্ম নিরোধ সমিতি (নাটাব) আয়োজিত কেবিএম কলেজের শিক্ষকদেও নিয়ে যহ্মা রোগ নিয়ন্ত্রণে সচেতনতা বৃদ্ধিতে কলেজ শিক্ষকগণের করণীয় শীর্ষক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নাটাব দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি তাহের উদ্দিন আহমেদ এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের আরএমও ডাঃ মোঃ পারভেজ সোহেল রানা।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন টিবি ক্লিনিক কালিতলার জুনিয়র কনসালটেন্ট ডাঃ সঞ্চিতা দাস, কেবিএম কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সরদার কুদরত-ই-খুদা। যহ্মা বিষয় নিয়ে বিস্তারিত তথ্যভিত্তিক আলোচনা করেন নাটাব কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের প্রতিনিধি মোঃ কাওছার উদ্দিন।

যহ্মার উপরে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা অংশ নেন কেবিএম কলেজের বিবিএ বিভাগের কো-অর্ডিনেটর মোঃ ফসিয়ার রহমান, প্রভাষক মোঃ জান্নাতুর রহমান, প্রভাষক মল্লিকা দে, প্রভাষক তহিদুল আলম ও প্রভাষক মোঃ বন্দে আলী প্রমুখ। সভায় প্রধান অতিথি ডাঃ মোঃ পারভেজ সোহেল রানা বলেন, যহ্মা একটি সংক্রামণজনিত রোগ।

তিনি সপ্তাহের বেশী কাশি থাকলে কফ পরীক্ষা করা দরকার। কফ পরীক্ষায় রোগ শনাক্ত হলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। নিয়মিত,ক্রমাগত, সকি মাত্রায় ও নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ঔষধ সেবনের মাধ্যমে যহ্মা রোগ সম্পূর্ণ ভালো হয়। শিক্ষকরা মানুষ বানাবার কারিগর। তাই যহ্মা রোগ প্রতিরোধে শিক্ষকদের যথেষ্ট ভূমিকা রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য