ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বীরভূমে দুটি ট্রাক থেকে ৩২ হাজার ৭৫০ কেজি অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট আটক করা হয়েছে, যা বিস্ফোরক তৈরিতে ব্যবহার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, ভারতের ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের রামপুরে মঙ্গলবার ভোরে দশ চাকার একটি ট্রাকে তল্লাশি চালিয়ে সাড়ে তিনশ ব্যাগ অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট পাওয়া যায়।

এরপর পঞ্চমীর তালবন্ধ গ্রামের এক গুদামে আরেকটি ট্রাক থেকে নামানোর সময় আটক করা হয় আরও ৩০৫ বস্তা অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট।

ওই গুদামের মালিক বিপুল মণ্ডল নামের এক ব্যক্তি যিনি বিভিন্ন পাথর কোয়ারিতে ব্যবহারের জন্য বিস্ফোরক সরবরাহ করেন। তবে দুই ট্রাক অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট আটকের পর থেকে তিনি লাপাত্তা। পুলিশ ওই গুদামের এক কর্মীকে আটক করেছে।

প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, ওই ট্রাক দুটো বীরভূমে আসে দক্ষিণ ভারতের হায়দ্রাবাদ ও মহারাষ্ট্র থেকে। তবে চালক বা তাদের সহকারীদের কাউকে পুলিশ ধরতে পারেনি।

বীরভূমের পুলিশ সুপার এন সুধীর কুমার বলেন, “আমরা ট্রাক মালিকের পরিচয় জানতে পেরেছি। তাকে গ্রেপ্তার করার চেষ্টা চলছে।

এই পুলিশ কর্মকর্তার ধারণা, বিস্ফোরকের উপাদানের এই চালান পাশের রাজ্য ঝাড়খণ্ডে যাচ্ছিল। ভারতের ওই এলাকা মাওবাদীদের অন্যতম বিচরণক্ষেত্রে।

অবশ্য ভারতের ইন্টেলিজেন্স ব্যুরোর কর্মকর্তারা জঙ্গিদের বিষয়টিও মাথায় রেখেছেন। তারা বলছেন, বাংলাদেশ থেকে পালিয়ে আসা পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন স্থানে গোপন আস্তানা ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে খুলেছে। সেসব জায়গাও ওই বিস্ফোরণের গন্তব্য হয়ে থাকতে পারে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য