দু’বছর আগেই শাকিব খানের বিপরীতে বড় পর্দায় অভিনয়ের সুযোগ হয়েছিল আলভিরা ইমুর। ছবির নাম ছিল ‘জানে মন তুই জীবন’। তবে পরিবারের সম্মতি না থাকার কারণে আর এ ছবিতে কাজ করা হয়ে ওঠেনি তার। পরিবারের সঙ্গে চলে যান সুদূর আমেরিকায়। কারণ তার বাবা-মা সেখানেই থাকেন।

তবে চলতি বছরের শুরুতে আমেরিকা থেকে ঢাকায় এসে বেশ কিছু ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়ে কাজ শুরু করেছেন তিনি। আলভিরা ইমু বলেন, শাহ আলম ম-লের হাত ধরেই শাকিব ভাইয়ের বিপরীতে ‘জানে মন তুই জীবন’ ছবিতে কাজ শুরু করেছিলাম। পরে পরিবারের আপত্তিতে আর কাজটা করা হয়নি। তবে বর্তমানে আবারো চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেছি। পড়াশোনার চাপও কম এখন।

বর্তমানে পাঁচটি ছবি আমার হাতে রয়েছে। তাজুল ইসলামের পরিচালনায় ‘গোপন সংকেত’ ছবির বেশকিছু অংশের কাজ শেষ করেছি। এ ছবিতে আমার বিপরীতে কাজ করছেন সাইমন। এ ছবির গল্পটি সাইবার ক্রাইমের ঘটনা নিয়ে। ভিন্নধর্মী এ ছবির ৫৫ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। এছাড়া আমি বর্তমানে উত্তম আকাশের ‘জেনারেশন গ্যাপ’, রফিক শিকদার বুলবুলের ‘খুশি’, অপূর্ব রানার ‘এক রাতের জন্য’ এবং ওয়াজেদ আলী সুমনের ‘ফালতু’ ছবিতে কাজের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছি।

আর ‘খুশি’ ছবির ৪০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। ঈদের পর নতুন ছবিগুলোর কাজ শুরু করব। আমি শুধু নায়িকা না অভিনেত্রী হিসেবে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করে যেতে চাই। এরইমেধ্য একটি ইলেকট্রিক পণ্যের বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজও করেছেন। শুরুতে চেয়েছিলেন শখের বসে দু-একটি নাটক বা বিজ্ঞাপনে কাজ করবেন। এখন তো চলচ্চিত্র নিয়ে ভীষণ সিরিয়াস তিনি। আর প্রতিদিনই কেউ না কেউ এসে গল্প শোনাচ্ছেন, শিডিউল চাইছেন তাই বেশ সিরিয়াস হয়েই কাজে নেমেছেন ইমু।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য