ভারতের উত্তর প্রদেশের বেরিলিতে বাস দুর্ঘটনায় ২৪ যাত্রী মর্মান্তিকভাবে দ্গ্ধ হয়ে নিহত এবং ৩১ জন আহত হয়েছেন। আজ (সোমবার) যাত্রীবোঝাই বাসটির সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষ হলে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ওই ঘটনায় শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করে নিহতদের পরিবারকে দুই লাখ টাকা করে আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছেন।

গতকাল রোববার দিবাগত রাত দেড়টা নাগাদ বাসটি দিল্লির আনন্দবিহার থেকে  উত্তরপ্রদেশের গোন্ডায় যাচ্ছিল। ২৪ নম্বর জাতীয় সড়কে বেরেলিতে একটি ট্রাকের সঙ্গে এটির সংঘর্ষ হয়। বাসের জ্বালানি ট্যাঙ্কার ফেটে গিয়ে আগুন ধরে গেলে যাত্রীরা সেখান থেকে বেরোতে পারেননি।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অগ্নিনির্বাপক বাহিনী পৌঁছানোর আগেই ততক্ষণে অনেকেই পুড়ে মারা যান। বাসটির চালক চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন, তিনি ঘুমাচ্ছিলেন এবং দ্বিতীয় চালক বাসটি চালাচ্ছিলেন।

বিজেপিশাসিত উত্তর প্রদেশের আইনমন্ত্রী ব্রজেশ পাঠক ওই দুর্ঘটনায় দুই ডজন মানুষ নিহত হয়েছে বলে জানান। এছাড়া ১৮ যাত্রী গুরুতর এবং ১৩ জন অল্পবিস্তর আহত হয়েছেন। হাসপাতালে ভর্তি সকলকে দিল্লি এবং এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকার চিকিৎসা কেন্দ্রে স্থানান্তর করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য