সন্ত্রাসী হামলার হুমকির মুখে জার্মানিতে একটি রক ফেস্টিভাল থেকে দর্শকদের সরিয়ে নিয়েছেন আয়োজকরা। শুক্রবার পশ্চিম জার্মানির নুয়েরবার্গ এলাকায় রক এম রিং নামে ওই উৎসব চলছিল বলে বিবিসি জানিয়েছে। তিনদিনব্যাপী এই উৎসবের এক পর্যায়ে ভক্ত সমর্থকরা যখন জড়ো হয়ে জার্মানির জনপ্রিয় ব্যান্ড দল হামস্ট্যাইনের গান শোনার অপেক্ষা করছিল, তখনই আয়োজকরা তাদের ‘শান্ত ও সুশৃঙ্খলভাবে’ অনুষ্ঠানস্থল ছেড়ে যাওয়ার অনুরোধ জানায়। “সন্ত্রাসী হামলার হুমকির প্রেক্ষিতে অনুষ্ঠানে ছেদ টানতে পুলিশ আমাদের পরামর্শ দিয়েছ,” ঘোষণায় এমনটাই বলে তারা।

গত মাসে যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টারে এমনই এক কনসার্টে সন্ত্রাসী হামলায় ২২জন নিহত হয়। ম্যানচেস্টারে হামলার কথা বিবেচনায় নিয়ে এই উৎসবের নিরাপত্তাও বাড়ানো হয়েছিল। পুলিশের প্রায় এক হাজার দুইশ সদস্য উৎসবস্থলে দায়িত্ব পালন করছিল বলে বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়। নুয়েরবার্গের এই রক ফেস্টিভালে এবার প্রায় ৮৫ হাজার মানুষ উপস্থিত হবেন বলে আয়োজকরা প্রত্যাশা করছিলেন।  নুয়েরবার্গের কাছাকাছি শহর কোবলেঞ্জের পুলিশ এক বিবৃতিতে জানায়, সন্ত্রাসী হামলার সুনির্দিষ্ট সম্ভাবনা থাকায় উৎসবটি স্থগিত করা হয়েছে।

উৎসব স্থগিত করলেও আয়োজকরা ফেইসবুক পোস্টে শনিবার থেকে অনুষ্ঠান পুনরায় চালুর ঘোষণা দিয়েছেন। এই বছর রক এম রিং তাদের ৩০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করছে। সাধারণত এই উৎসবটি পেন্টাকোস্টের ছুটির সপ্তাহান্তে শুরু হয়।  হামস্ট্যাইন ছাড়া শুক্রবার আর যেসব ব্যান্ড দলের গান করার কথা ছিল তাদের মধ্যে ছিল ওয়েলশলি আর্মস, ইন ফ্লেমস ও টুসেলোসের মতো জনপ্রিয় ব্যান্ডও। গত বছরের অগাস্টে জার্মানির দক্ষিণাঞ্চলীয় আসবাখ শহরে এরকমই একটি উন্মুক্ত কনসার্টের বাইরে এক আত্মঘাতি বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছিল।

কনসার্টে প্রবেশের সময় এক নিরাপত্তারক্ষী তাকে বাধা দিলে হামলাকারী তার পিঠে থাকা বিস্ফোরকভর্তি ব্যাগ নিয়ে স্থানীয় বিয়ার গার্ডেনে হামলা চালায়, এ ঘটনায় অন্তত ১৫জন আহত হয়েছিল। সিরিয়া থেকে আসা এক ব্যক্তি ওই হামলাটি চালায় যে জার্মানিতে অভিবাসনের আবেদন করেও প্রত্যাখ্যাত হয়েছিল বলে সেসময় বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়। গত বছরও ঝড়ের কারণে রক এম রিং উৎসব বাধাগ্রস্ত হয়। সেবার বজ্রপাতে আহত অন্তত ৩০জনকে অনুষ্ঠানস্থল থেকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য