দিনাজপুরের বোচাগঞ্জে ২ বছরের শিশু কন্যা অষ্টমি রানীকে সাথে নিয়ে এক রশি ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে জোতিকা রানী (২২) নামে এক গৃহবধু।

জোতিকা রাণী উপজেলার রনগাঁও ইউনিয়নের পার্বতীপুর গোসাই গ্রামের সনাতন রায়ের স্ত্রী।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার রনগাঁও ইউনিয়নের পার্বতীপুর গোসাই গ্রাম থেকে মা-মেয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

বোচাগঞ্জ থানার ওসি আরজু মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন জানান, বেশ কয়েকদিন ধরে স্বামী সনাতন রায়ের সাথে স্ত্রী জোতিকা রানী মধ্যে কোন্দল চলে আসছিল। কোন্দলের কারণে স্বামীর উপর অভিমান করে বৃহস্পতিবার বিকেলে নিজ শয়ন কক্ষে ২ বছরের শিশু কন্যা অষ্টমি রানীকে সাথে নিয়ে এক রশি ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে গৃহবধু জোতিকা রানী। এ সময় স্বামী বাড়ীতে ছিলেন না।

পুলিশ রাতে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে লাশের সুরতহাল রির্পোট তৈরী করে।

পারিবারিক কোন অভিযোগ না থাকায় মানবিক বিষয় বিবেচনা করে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পারিবারিক ভাবে রাতেই শেষ কৃতকার্য সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানা যায়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য