ইরানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে সমর্থনের অভিযোগ তুলে কোনো লাভ হবে না বলে মন্তব্য করেছে রাশিয়া। মস্কো বলেছে, রাশিয়ার সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে তেহরানের সক্রিয় অংশগ্রহণ রয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্প্রতি সৌদি আরব সফরে গিয়ে অভিযোগ করেছিলেন, ইরান মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে।  এ ছাড়া, ট্রাম্প তার ভাষায় দাবি করেন, লেবাননের হিজবুল্লাহর মতো ‘সন্ত্রাসী’ গোষ্ঠীগুলোকে সহযোগিতা করছে  তেহরান।

ট্রাম্প এমন সময় হিজবুল্লাহকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী বলে অভিহিত করেন যখন সিরিয়ায় তৎপর সৌদি-সমর্থিত জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশের বিরুদ্ধে লড়াই করছে এই প্রতিরোধ আন্দোলন। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া যাখারোভা বুধবার মস্কোয় মার্কিন প্রেসিডেন্টের ইরান বিরোধী বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করে বলেন, “এ ধরনের বক্তব্য পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে কোনো কাজে আসবে না।” তিনি আরো বলেন, “ইরান যখন মধ্যপ্রাচ্যে সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে রাশিয়াকে ঘনিষ্ঠভাবে সহযোগিতা করছে তখন তেহরানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে সমর্থনের অভিযোগ অর্থহীন।”

রাশিয়ার এই কূটনীতিক বলেন, রাজনৈতিক উপায়ে সিরিয়া সংকট সমাধানের লক্ষ্যে আস্তানায় যে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে তাতে আমেরিকা অংশগ্রহণ না করলেও ইরান করেছে।  সম্প্রতি কাজাখস্তানের রাজধানী আস্তানায় ইরান, রাশিয়া ও তুরস্কের উদ্যোগে সিরিয়ায় সংঘর্ষরত পক্ষগুলোকে নিয়ে একাধিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এসব সম্মেলনে গৃহিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতি কার্যকর রয়েছে। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র এ সম্পর্কে বলেন, “আস্তানা প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে তেহরানের সঙ্গে কার্যকর শলা-পরামর্শ চালিয়ে যাচ্ছে মস্কো।” তিনি আরো বলেন, “আমরা একাধিকবার আস্তানা প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণের জন্য আমেরিকাকে আমন্ত্রণ জানালেও দেশটি তাতে সাড়া দেয়নি।”

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য