বক্সঅফিসে সাড়া ফেলতে পারেনি চলতি বছরের বহুল প্রতীক্ষিত হলিউড ছবি ‘বেওয়াচ’। ডোয়াইন জনসন ওরফে দ্য রক, জ্যাক এফরন ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মতো দামী তারকা সমাবেশ সত্ত্বেও দর্শকের মন জয় করতে পারেনি ছবিটি।

সাবেক বিশ্বসুন্দরী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার প্রথম হলিউড ছবি হিসেবে ‘বেওয়াচ’কে ঘিরে অনেকটাই আশান্বিত ছিলেন ভক্তরা। প্রধান খলনায়িকা ভিক্টোরিয়া লিডস হিসেবে কেমন মাৎ করেন ‘কোয়ান্টিাকো’ তারকা তাই ভাবছিলেন সবাই। কিন্তু বিধি বাম বলতেই হয়, বক্সঅফিসের পাশাপাশি সমালোচকদের দৃষ্টি কাড়তেও ব্যর্থ হয়েছে ছবিটি।

ভ্যারাইটি ডটকম বলছে, ২৫ মে মুক্তি যুক্তরাষ্ট্রের সাড়ে তিন হাজারের বেশি হলে মুক্তি পায় ‘বেওয়াচ’। মুক্তির চার দিনে এ ছবির মোট আয় দুই কোটি দুই লাখ মার্কিন ডলার (২২ মিলিয়ন)। ‘বেওয়াচ’য়ের  একদিন পরে মুক্তি পেয়ে প্রথম  তিন দিনেই প্রায় ৭ কোটি ৭ লাখ (৭৭ মিলিয়ন) মার্কিন ডলার ঘরে তুলেছে জনি ডেপের ‘পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ানস: ডেড মেন টেল নো টেলস’।

বক্সঅফিস বিশ্লেষকদের মতে, যুক্তরাষ্ট্রে ‘বেওয়াচ’য়ের আয়ের সূচক আর বাড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। এ মুহূর্তে আন্তর্জাতিক বাজারের দিকেই দৃষ্টি নির্মাতাদের। প্যারামাউন্ট পিকচার্সের প্রচারক কমিটির সদস্য মেগান কলিগন বলেন, “সম্ভবত বাজে রিভিউ’য়ের কারণেই ছবিটি ভালো ব্যবসা করতে পারছে না। এ মুহূর্তে আন্তর্জাতিক বাজারের উপর ভরসা করা ছাড়া আমাদের আর কোনো উপায় নেই।”

সিনেমা বিশ্লেষণ সাইট রোটেন টমেটোতে মাত্র ১৯ শতাংশ ভোট পেয়েছে ছবিটি। গল্প ও নির্মাণগত দিক দিয়েও ছবিটি ‘নিকৃষ্ট’ ও ‘হাস্যকর’- এমনটাই বলেছে অনেকেই। এমনকি প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার অভিনয়কেও গড়পড়তা বলেই উল্লেখ করা হয়েছে ফোর্বস ম্যাগাজিনের এক প্রতিবেদনে।

হলিউডে অভিষেক ছবির এ করুণ অবস্থায় মুষড়ে পড়েননি প্রিয়াঙ্কা। সম্প্রতি টুইটারে প্রকাশিক এক ছবিতে সুইমিংপুলে গা ডুবিয়ে গ্রীষ্মের ছুটি উপভোগ করতেই দেখা গেছে তাকে! ২ জুন ভারতে মুক্তি পাবে ‘বেওয়াচ’। নিজ দেশে দর্শকের মন মাতাতে পারেন কিনা পিগি চপস এখন সেটিই দেখার বিষয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য