হাকিমপুর (দিনাজপুর) সংবাদদাতাঃ দিনাজপুরের হিলি সীমান্তের চোরাচালানসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে গত ২৪ মে থেকে ২৭মে পযন্ত বিভিন্ন বিভান্তকর ও উস্কানিমুলক সংবাদ বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকায় পরিবেশন করে হিলির ভাবমুত্তি ক্ষুন্ন করার প্রতিবাদে আজ শনিবার দুপুরে সিপি রোডস্থ রাজ এন্টারপ্রাইজ অফিসে এলাকাবাসীর পক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেন হিলি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি ও ট্রাক মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক সাবেক মেয়র কামাল হোসেন রাজ।

সাংবাদিক সম্মেলনে তার লিখিত বক্তব্যে কামাল হোসেন রাজ বলেন- উদ্দেশ্য প্রনোদিত মিথ্যা ভিত্তিহীন এমন মিথ্যা খবরে আমরা হিলিবাসী মর্মাহত ।

তিনি বলেন, হিলিতে কোন মাফিয়া চক্র নেই। চোরাচালানের কোন সিন্ডিকেটও নেই। সীমান্তে আগের চেয়ে বিজিবি টহল বৃদ্ধি করা হয়েছে। চোরাচালান রোধ করতে সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্টে সিসি টিভি ক্যামেরা দ্ধারা নিয়ন্ত্রন করছেন বিজিবি।

হাকিমপুর থানা পুলিশ মাদক নিয়ন্ত্রন করেছে। ইতিমধ্যে ১৫০ জন মাদক চোরাকারবারী ও সেবনকারী পুলিশের কাছে আত্বসমপর্ণ করেছে। এদের মধ্যে ১ মাসের প্রশিক্ষনের মাধ্যমে ৩০ জন মহিলা মাদক চোরাকারবারীকে সেলাই মেশিন প্রদান করেন। পুরুষ মাদক চোরাকারবারীকে ভ্যান দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে। এবং তাদের নজর দারির মধ্যে রাখা হয়েছে।
ওই পত্রিকাটিতে আরও বলা হয়েছে, চোরাচালানের ভয়ংকর ৭১ সিন্ডিকেট জড়িত। এই ধরনের সিন্ডিকেট হিলিতে অতিতে ছিলনা বর্তমানেও নেই।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য