ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলীয় মারাওয়ি শহরে অবস্থানত উগ্র তাকফিরি জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সেনা অভিযানের জের ধরে হাজার হাজার মানুষ নিরাপদ আশ্রয়ে পালিয়ে যাচ্ছেন।

ফিলিপাইনের সলিসিটর-জেনারেল জোসে ক্যালিদা বলেছেন, মিন্দানাও দ্বীপের ওই শহরে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াইরত একটি জঙ্গি গোষ্ঠী ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়া থেকে লোক এনে তাদের দলে ভর্তি করেছে।

বৃহস্পতিবার মারাওয়িতে সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে যে ছয় জঙ্গি নিহত হয়েছে তাদের মধ্যে মালয়েশিয়া এবং ইন্দোনেশিয়ার নাগরিক রয়েছে বলে তিনি জানান।

ফিলিপাইনের সেনাবাহিনী প্রায় দুই লাখ জনসংখ্যা অধ্যুষিত এই শহর থেকে জঙ্গিদের হঠিয়ে দিতে অ্যাটাক হেলিকপ্টার এবং বিশেষ বাহিনী পাঠিয়েছে।  এ পর্যন্ত সংঘর্ষে ১১ সৈন্য ও ৩১ জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

প্রেসিডেন্ট দুতের্তে এর আগে মঙ্গলবার মিন্দানাও দ্বীপে সামরিক আইন জারি করেন। তাকফিরি জঙ্গিবাদের বিস্তার রোধ করতে ফিলিপাইনের দ্বিতীয় বৃহত্তম দ্বীপে তিনি এই ব্যবস্থা নেন।  দুতের্তে এ সম্পর্কে বলেছেন, উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস বা দায়েশ ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলে স্থায়ী ঘাঁটি স্থাপন করতে চায়।

বর্তমানে ইরাক ও সিরিয়ায় সবচেয়ে বেশি তৎপর রয়েছে এই তাকফিরি জঙ্গি গোষ্ঠী। দায়েশ দৃশ্যত দক্ষিণ ফিলিপাইনে দারিদ্র ও অরাজকতা ছড়িয়ে দিয়ে গোটা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় তাদের উগ্র ওহাবি মতবাদ ছড়িয়ে দিতে চায়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য