যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার এরিনায় কনসার্টে সন্দেহভাজন আত্মঘাতী বোমা হামলাকারীর নাম সালমান আবেদি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

একটি ইনডোর স্টেডিয়ামে মার্কিন পপ তারকা আরিয়ানা গ্রান্ডের কনসার্টে সোমবার রাতের ওই হামলায় শিশুসহ অন্তত ২২ জন নিহত হন, আহত হন অন্তত ৫৯ জন।

হামলাকারীর বয়স ২২ বছর। তার জন্ম ম্যানচেস্টারে এবং সে লিবিয়া বংশোদ্ভূত পরিবার থেকে এসেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

রাতের কনসার্ট শেষে আরিয়ানার ভক্তরা চলে যেতে শুরু করার পরই আবেদি নিজেকে উড়িয়ে দেয় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গ্রেটার ম্যানচেস্টার পুলিশ বলেছে, আবেদি একা এ হামলা চালিয়েছে কি না সেটিই অগ্রাধিকার ভিত্তিতে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ম্যানচেস্টোরে কয়েকটি জায়গায় থেকেছেন আবেদি। এর মধ্যে রয়েছে এলসমোর রোড এবং ফলোফিল্ডের বাড়িও। যেখানে পুলিশ তল্লাশি চালিয়েছে।

পুলিশ হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সাউথ ম্যানচেস্টার থেকে ২৩ বছর বয়সী চর্লটন নামের আরেকজনকেও গ্রেপ্তার করেছে।

তবে আবেদিকে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে চিহ্নিত করা যায়নি বলে তার সম্পর্কে আর বেশি কোনও মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন গ্রেটার ম্যানচেস্টারের পুলিশের প্রধান কনস্টেবল আয়ান হপকিন্স।

এ পর্যন্ত হামলায় নিহতদের তিনজনের নাম জানা গেছে। একজন ৮ বছর বয়সী শিশু সাফিয়ে রোসে রাওসোস এবং অন্য দুইজন ১৮ বছর বয়সী ছাত্রী জর্জিনা ক্যালেন্ডার এবং ২৮ বছর বয়সী জন আকিনসন।

ম্যানচেস্টারের আলবার্ট স্কয়ারের টাউন হলে নিহতদের স্মরণে চলছে মোমবাতি মিছিল।

অন্যদিকে, শহরজুড়ে আটটি হাসপাতালে আহতদের চিকিৎসা চলছে। এদের মধ্যে ১২ থেকে ১৬ বছর বয়সীরাও আছে। আরও অনেক মানুষকে এখনও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য