কাহারোল (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ কাহারোলে বিভিন্ন পাকা সড়ক গুলোতে ধান ও খড় শুকানোর ফলে ঘটতে পারে দূর্ঘটনা। দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে বিভিন্ন পাকা সড়ক গুলোতে চলতি ইরি মৌসুমের ধান কাটার পর কৃষকরা বাড়ির আঙ্গিনায় ধান মাড়াই না করে পাকা সড়কের উপর মাড়াই করে খড় গুলো শুকাতে দেখা যাচ্ছে।

এর ফলে ঐসব পাকা সড়ক গুলো দিয়ে প্রতিনিয়ত জনসাধারণ ও যানবাহন চলাচলে বিড়ম্বনার স্বীকার হচ্ছে। পাকা সড়ক গুলোতে ধান ও খড় শুকানোর ফলে যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা এরুপ আশঙ্কা করছে অনেকেই। কিন্তু এসব খড় বা ধান পাকা সড়কে শুকালেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করার কারণে দিন দিন পাকা সড়ক গুলোতে ধান ও খড় শুকানোর মাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এদিকে সরেজমিনে ঘুরে দেখতে গিয়ে মুকুন্দপুর ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের নাম প্রকাশ অনিচ্ছুক কয়েকজন কৃষকের সঙ্গে কথা হলে তারা জানান, বাড়ির মধ্যে বড় ধরনের তেমন আঙ্গিনা না থাকার ফলে আমাদের অতি কষ্টের ফসল ধান ও খড় ভাল ভাবে শুকানোর জন্য আমরা পাকা সড়ক গুলো ব্যবহার ছাড়া অন্য কোন উপায় নেই।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আসলাম মোল্লার সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি জানান, বিষয়টি অতি দ্রুত সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদেরকে জরুরী ভিত্তিতে অবগত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস প্রদান করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য