দিনাজপুর থেকে জিন্নাত হোসেনঃ দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম এবং সহকারি প্রকৌশলী বদি উজ্জামান ফারুকী জুয়েলের দুর্নীতি অনিয়মের প্রতিকার দাবিতে ২২মে সোমবার বেলা ১১ টার দিকে শহরের ব্যস্ততম মুন্সিপাড়া এলাকার জেনারেল হাসপাতালের সম্মুখ সড়কের সামনে ট্রাফিক মোড়ে অভিনব কায়দায় ব্যতিক্রমধর্মী প্রতিবাদী কর্মসূচি পালন করেছেন পৌরসভার ১২ নম্বর  ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ আশরাফুল আলম রমজান।

মেয়রের দুর্র্নীতি রোখার দাবিতে নিজের শরীরের সামনে “দিনাজপুর পৌর মেয়রের দূর্নীতি থামাবে কে ? শরীরের পিঠের অংশে প্রশাসন ও পৌরবাসী নিরব কেন ?” শ্লোগান লিখে জাতীয় পতাকা হাতে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত দেড়ঘন্টা ধরে প্রখোর রোদে দাড়িয়ে নিরব প্রতিবাদ জানান তিনি। এসময় সংহতি প্রকাশ করে তার পাশে দাঁড়ান পথচারিসহ ভুক্তভোগিরা।

মেয়র এবং সহকারি প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুর্র্নীতি এবং অনিয়মের ফিরিস্থি তুলে ধরেন প্রতিবাদী ওয়ার্ড কাউন্সিল আশরাফুল আলম রমজান। কাউন্সিলর আশরাফুল আলম  রমজান জানান, আগামীতে অন্যান্য কাউন্সিলর এবং নাগরিকদের সাথে নিয়ে দুর্র্নীতি এবং অনিয়ম বন্ধের জন্য প্রতিবাদী কর্মসূচি অব্যাহত রাখার ঘোষণা রাখা হবে। ভবন তৈরির প্লান পাশে নিয়ম মানার পরিবর্তে সহকারি প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ১০/ ১৫ হাজার টাকা করে ঘুষ দাবির অভিযোগ তুলেন কয়েকজন ভুক্তভোগিরা। সেবা থেকে বঞ্চিত নাগরিকরা ভোগান্তির শিকার হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তারা।

এর আগেও দুর্নীতির অভিযোগে কাউন্সিলর আশরাফুল আলম  রমজান মেয়র এবং প্রকৌশলীরসহ হিসাব শাখার কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য