দিনাজপুর সংবাদাতাঃ তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মোহাম্মদ বলেছেন, জাতীয় সম্পদ এবং সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলনে দেশের সর্বস্তরের জনগনকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। ফুলবাড়ি উন্মুক্ত কয়লা কনির ষড়যন্ত্র এখনো অব্যাহত আছে। ভারত-চীনসহ বিশ্বেও অন্যান্য দেশ যখন কয়লাভিত্তিক বিদুৎ কেন্দ্র তৈরী থেকে সরে আসছে।

আমাদের শাসক গোষ্টি ভারত-চীনের কয়লা ও পরমানু বর্জ্য ফেলানোর ডাস্টবিন বানানোর চক্রান্ত করছে। তিনি অবিলম্বে ফুলবাড়ি নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে দায়ের করা সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, দেশের বিদ্যৎ ও জ্বালানী সংকট নিরসন, জাতীয় সম্পদ রক্ষায় জাতীয় কমিটি উখাপিত ৭ দফা দাবী বাস্তবায়নের দাবী জানান।

শনিবার (২০ মে) সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাবে তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক আনু মোহাম্মদ এসব কথঅ বলেন।

দিনাজপুর জেলা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ আলতাফ হোসাইনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি জেলা কমিটির সভাপতি এ্যাড. মো. মেহেরুল ইসলাম, ইউনাইটেড কমিউনিস্টলীগ নেতা মো. আক্তার আজিজ, বাসদ মার্কসবাদী নেতা এএসএম মনিরুজ্জামান, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট সাধারন সম্পাদক সুলতান কামাল উদ্দীন বাচ্চু, খন্দকার আশরাফুজ্জামান, লিটন রায় প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রেজাউল ইসলাম সবুজ।

আলোচনা শেষে মোহাম্মদ আলতাফ হোসাইনকে সভাপতি ও রেজাউল ইসলাম সবুজকে সদস্য সচিব করে তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদুৎ বন্দর রক্ষা দিনাজপুর জেলা শাখার কমিটি পুর্ণগঠন করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য