দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ঢাকার রেইনট্রি হোটেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী ধর্ষণসহ সম্প্রীতি দেশব্যাপী ঘটে যাওয়া ধর্ষন ও নারীর প্রতি সহিংসতার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে। দিনাজপুরের যুব সমাজ ও সমাজকর্মীদের ব্যানারে ৫ দফা দাবী বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মানববন্ধন কর্মসূচী ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

সোমবার (১৫ মে) দুপুরে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে জেলা চেঞ্জমেকার এলায়েন্স কমিটির সভা প্রধান শাহ্্ মো. শাহজাহান.র সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরূপ কুমার বক্্সী বাচ্চু, নারী নেত্রী আজাদী হাই, নাগরিক উদ্যোগের আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ, পল্লী শ্রী’র ম্যানেজার সুরাইয়া আখতার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক সুলতান কামাল উদ্দিন বাচ্চু, মহিলা পরিষদের সভাপতি কানিজ রহমান, সাধারণ সম্পাদক মারুফা বেগম, লেখিকা লায়লা চৌধুরী, পৌর কাউন্সিলর শাহীন সুলতানা বিউটি, যুব সমাজের পক্ষে রুবী আফরোজ, শামীমা পপি, শাহনাজ পারভীন প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, সারা দেশব্যাপী সংগঠিত নারীর প্রতি সহিংসতার ঘটনায় আমরা সঙ্কিত ও উদ্বিগ্ন। নারীর প্রতি সংগঠিত সহিংসতার নিন্দা জানিয়ে বক্তারা বলেন, এ অবস্থা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না। নির্যাতনকারীরা বরাবরই শক্তিশালী, তারা ক্ষমতার আশ্রয়-প্রশ্রয়ে আইনের ফাঁক ফোকর দিয়ে নিরাপদে পার  পেয়ে যায়।

মানববন্ধন শেষে ন্যায় বিচার প্রাপ্তির জন্য ৫ দফা দাবীতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। ৫ দফা দাবীর মধ্যে রয়েছে, ধর্ষণের সাথে সরাসরি সকল অপরাধীকে এবং মদদদাতাদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা, ধর্ষণের সাথে সংশ্লিষ্ট রেইনট্রি হোটেলসহ অন্যান্য বিলাসবহুল হোটেলে কড়া নজরদারি ও জবাবদিহিতার মধ্যে নেয়া, নারীর প্রতি সকল ধরনের সহিংসতার ঘটনা থানায় আসা মাত্রই সংশ্লিষ্ট থানাকে অভিযোগটি গ্রহণ করা, এ ক্ষেত্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারের কোন প্রকার অবহেলা পরিলক্ষিত হলে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা, ধর্ষনকারীদের বিশেষ ট্রাইব্যুনালের আওতায় এনে দ্রুত শাস্তির ব্যবস্থা করা, অর্থের বিনিময়ে এবং ক্ষমতার দাপটে নারীর প্রতি সহিংসতার কোন ঘটনাকে কোনভাবেই ভিন্নখাতে প্রবাহিত না করা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য