বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের বীরগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় চৈলো হেম্ব্রম (৫৫) নামে এক আদিবাসী নিহত হয়েছে।

নিহত চৈলো হেম্ব্রম দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব দাড়িয়াপুর আদিবাসী পাড়ার মৃত ঢেনা হেম্ব্রম-এর পুত্র।

রবিবার বিকেল সাড়ে ৫টায় হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

নিহতের মেয়ে শুকুর মনি হেম্ব্রম জানান, প্রতিবেশী বাবলু মুর্মুর ছেলে সদ্য এসএসসি পাশ করা মাইকেল মুর্মু (১৭) রোববার ভোরে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা যায়।

বিকেল ৩টায় সৎকারের পুর্বে মাইকেলের মরদেহ দেখতে তাদের বাসায় যায় আমার বাবা। আমার বাবা তাকে যাদু টোনা করে মেরে ফেলেছে এমন ধারণা করে মাইকেলে ভাই রজনী মুর্মু টিউবলেয়ের হাতল এবং বিশু মুর্মু ধারালো চুরি দিয়ে কুপিয়ে আহত করে।

আমরা লোকজন ছুটে এসে আহত বাবাকে উদ্ধার করে বাড়ী নিয়ে আসি। বাড়ীতে রক্তক্ষরণ বন্ধ না হওয়ায় স্থানীয় চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল খালেক সরকারকে বিষয়টি জানাই। চেয়ারম্যান ইউনিয়ন পরিষদের এ্যাম্বুলেন্স দিয়ে তাকে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ নেওয়ার পথে বিকেল সাড়ে ৫টায় তিনি মারা যায়।

ঘটনার পর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমীন ঘটনাস্থলে ঘটনাস্থল পরিদর্শে করেছেন বলে জানিয়েছেন বীরগঞ্জ থানার এসআই মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি জানান, ঘটনার পর অভিযুক্তরা সকলেই বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

বীরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ আবু আককাস আহমেদ ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, খবর পাওয়ার পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছেন। লাশ ময়না তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য