বিরামপুর (দিনাজপুর) সংবাদাতাঃ সৌদিআরবে শনিবার সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত মাইক্রো ড্রাইভার মাসুদ রানার (২৮) বিরামপুর উপজেলার চকশুলবান গ্রামের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মাসুদ রানার পিতা আইয়ুব আলী ২৭ বছর ধরে সৌদি আরবে হাফার আল বাতিন এলাকায় মুদি ব্যবসা করে আসছেন। ১০ বছর আগে পুত্র মাসুদ রানাকে সৌদিতে নিয়ে গিয়ে নিজের ব্যবসায় নিয়োজিত করেন। সম্প্রতি মাসুদ রানা নতুন মাইক্রোবাস কিনে নিজেই চালনা শুরু করেন।

ফেনির একটি পরিবারকে নিয়ে ওমরা শেষে হাফার আল বাতিন ফেরার পথে শনিবার উম্মে জম জম এলাকায় সড়ক দূর্ঘটনায় ঐ পরিবারের তিনজনসহ ড্রাইভার মাসুদ রানা নিহত হয়েছেন।

এখবর বিরামপুর উপজেলার চকশুলবান তার গ্রামের বাড়িতে পৌঁছালে পরিবার পরিজনের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। গ্রামে নিহত মাসুদ রানার পরিবারের সাথে স্ত্রী ও ২ বছরের এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য